মেখলীগঞ্জের পুনঃ নির্বাচনে মাত্রাতিরিক্ত নিরাপত্তায় সাংবাদিকদের বাধা, উঠছে প্রশ্ন

স্বপন রায় বীর (টী.এন.আই মেখলীগঞ্জ) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই, মেখলীগঞ্জ, ১৬ই মে, ২০১৮: কুচবিহার জেলায় মোট ৫২ টি বুথে আজ হয়েছে পূর্ণনির্বাচন। এর মধ্যে মেখলীগঞ্জ ব্লকে একটি৷ মেখলীগঞ্জ ব্লকের চ্যাংড়াবান্দা অঞ্চলের ৫৭ নং বুথে গত ১৪ই মে সকাল সকাল তাণ্ডব চালায় দুষ্কৃতিরা। ব্যালট বাক্স, চেয়ার টেবিল ভেঙ্গে দেওয়া হয়। এমনকি লন্ডভন্ড করা হয় ব্যালট পেপার। ঘটনা ঘটার পর ছুটে এসেছিল পুলিশ, উত্তপ্ত পরিস্থিতি সামাল দিতে সেদিন মোতায়ন করা হয় বিশাল পুলিশ বাহিনী। তবে গতকাল নির্বাচন কমিশন থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় আজকের ১৬ তারিখ পুননির্বাচনের কথা৷ সেই মত এই বুথে হয়েছে ভোট গ্রহণ৷ পুলিশসূত্র অনুযায়ী -“প্রথম দিনের ভোট গ্রহণে যতগুলো পুলিশ গোটা ব্লকে মতায়ন ছিল, সেই সব পুলিশ এবং অফিসার এই বুথে ছিলেন। কোন রকম সন্ত্রাস যাতে না ঘাটে এজন্য পস্তূত ছিল পুলিশ বাহিনী৷

অন্যদিকে, বুথের প্রায় একশ মিটার দূরে শাসক, বিরোধী, এবং নির্দল কর্মীরা জড়ো হয়েছিল বলে শোনা গিয়ছিল৷ তবে, ভোটার ছাড়া অন্য কাউকে বুথের সীমানার কাছে ঢুকতে দেয়নি পুলিশ৷ অন্যদিকে, রাজনৈতিক মহলের মতে – নিরাপত্তা যতই থাকুক না কেন ছাপ্পাভোট অব্যাহত থাকবে। এই সন্দেহ হয় কারন ওই বুথের ভিতরের ছবি তোলায় বাধা দেন আধিকারিকরা। প্রশ্ন ওঠে – ঠিক কি হচ্ছে তথ্য সংগ্রহে বাধা কেন? কেন ভিতরের ছবি তুলতে দেওয়া হল না? অন্যদিকে, ইলেকশন কমিশনের নির্দেশ অনুযায়ী কোন জায়গার ছবি সাংবাদিকরা তুলতে পারবে কি পারবে না সেটা স্পষ্ট লেখা আছে। কিন্তু ভিতরের ছবি তলা যাবে যতটুকু উল্লেখ আছে। তবে এই আধিকারিকদের অতিরিক্ত সতর্কতা ও সাংবাদিকদের কাজে বিঘ্ন ঘটানোর দৃশ্য দেখে প্রশ্ন উঠছে – বাইরে মাত্রাতিরিক্ত কঠোর নিরাপত্তা, ভেতরে আসলে কি?

ছবিঃ স্বপন রায় বীর (টী.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!