রায়গঞ্জে মনোনয়ন জমা ঘিরে বিজেপি – টিএমসি সংঘর্ষ, উত্তপ্ত শহর

পার্থ চ্যাটার্জি (টী.এন.আই রায়গঞ্জ) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই রায়গঞ্জ ৪ঠা এপ্রিল, ২০১৮: মনোনয়নপত্র তোলা ও জমা দেওয়াকে কেন্দ্র করে বুধবার সকাল থেকেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে রায়গঞ্জ শহর। এদিন সকাল ১১ টা নাগাদ বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা রায়গঞ্জ বিডিও অফিসে মনোনয়নপত্র তুলতে ও জমা দিতে গেলে তণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা আগ্নেয়াস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে আক্রমণ করে বলে অভিযোগ। এরপর তারা সেখান থেকে তারা দলীয় কার‌্যালয়ের সামনে এসে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। প্রায় দেড় ঘন্টা চলে অবরোধ। শহরের ব্যস্ততম রাস্তা এমজি রোড প্রায় এক ঘন্টার বেশি অবরোধে যানজট লেগে যায়। প্রশাসনিক আশ্বাসে পথ অবরোধ তুলে নিয়ে ফের মিছিল করে মনোনয়নপত্র তোলার জন্য বিডিও অফিস চত্ত্বরের সামনে যেতেই বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের উপর তণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা ব্যাপক বোমাবাজি করে এবং বিজেপি রোগী পরিষেবা কেন্দ্রটি ভাঙচুর চালায় তারা বলে অভিযোগ।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র উত্তেজনা ছড়ায় এলাকা জুড়ে। ঘটনার পর রায়গঞ্জ থানার আইসি সহ বিশাল পুলিশ বাহিনী এলাকায় পৌঁছায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে মোতায়েন রাখা হয় কমব্যাট ফোর্স। দুষ্কৃতীদের আক্রমণে ও বোমার আঘাতে বিজেপির তিন কর্মী আহত হয় বলে জানিয়েছেন বিজেপি নেতত্ব। এরপর বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা আবার দলীয় কার্যালয়ের সামনে এসে বেলা ৩ টা নাগাদ অবরোধ শুরু করে। তণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তারের পাশাপাশি মনোনয়নপত্র তোলা ও জমা দেওয়ার ব্যাপারে পুলিশি আশ্বাস পেয়ে শেষ পর‌্যন্ত অবরোধ তুলে নেয় বিজেপির কর্মীরা। বিজেপি নেতা শ্রী বিশ্বজিৎ লাহিড়ী বলেন, শাসক দলের সন্ত্রাসে মনোনয়নপত্র তুলতে ও জমা দিতে পারছে না বিজেপি। অথচ পুলিশ নিষ্ক্রিয়। তিনি বলেন, আজ সকালে মহিলা ও এসপি প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দিতে গিয়েছিল রায়গঞ্জ ব্লক অফিসে। সেই সময় তণমূলের গুণ্ডা বহিনী প্রার্থীদের উপর বোমা ও বন্দুক নিয়ে হামলা চালায়। এমন অবস্থা চলতে থাকলে বৃহস্পতিবার থেকে সশস্ত্র আন্দোলনের পথে হাটবে বিজেপি। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, গত বছর মেয়ে মাসে রায়গঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে যে পদ্ধতি অবলম্বন করেছিল শাসক দল। পঞ্চায়েত নির্বাচনেও সেই পদ্ধতি অবলম্বন করতে চাইছে। দুষ্কৃতীদের তাণ্ডবে আতঙ্কিত রায়গঞ্জ শহর ও শহরতলীর বাসিন্দারা। যদিও জেলা তণমূল নেতত্ব বিজেপির অভিযোগকে মানতে নারাজ। আইএনটিটিইউসি-র জেলা সভাপতি তথা রায়গঞ্জ পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান শ্রী অরিন্দম সরকার বলেন, বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের তাণ্ডবে রায়গঞ্জ শহর উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। বহিরাগত দুষ্কৃতীদের এনে আজ মনোনয়নপত্র তুলতে গিয়েছিল বিজেপি প্রার্থীরা। তাদের হাতেই আগ্নেয়াস্ত্র সহ লাঠিসোটা ছিল। তারাই তণমূল কর্মীদের আক্রমণ করেছে। অবিলম্বে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন তিনি। জেলা পুলিশ সুপার শ্রী শ্যাম সিং জানান, দুষ্কৃতীরা যে দলেরই হোক না কেন তাদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার করা হবে। দুই দলের তরফে মৌখিকভাবে অভিযোগ জানানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!