চিকিৎসা করাতে ভিন রাজ্যে গিয়ে নিখোজ প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক

সুপ্রিয় বসাক (টী.এন.আই) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই জলপাইগুড়ি ৩রা জানুয়ারি ২০১৮: চিকিৎসার জন্য ভিন রাজ্যে গিয়ে নিখোজ প্রধান শিক্ষক। চিকিৎসা করতে গিয়ে নিখোজের ঘটনায় প্রথমে জেলা পুলিশ সুপারের দারস্থ হয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দারস্থ হওয়ার কথা জানালেন নিখোজের পরিবার। খোজ খবর করেও না পেয়ে বাধ্য হয়ে মুখ্য মন্ত্রীর দারস্থ হতে চলছে পরিবার। নিখোজ  বৃদ্ধের নাম সত্যেন্দ্রনাথ ঘোষ (৭৭)। ডুয়ার্সের ক্রান্তি এলাকার বাসিন্দা। এলাকারই এক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক সত্যেন্দ্রনাথ বাবুর নিখোজের ঘটনায় চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে। বয়স হলেও শারিরিক ভাবে যথেষ্ট ভাবেই চলা ফেরা ভালো মতোই করতে পারতেন। বুধবার সতেনন্দ্রনাথ বাবুর মেয়ে তথা জলপাইগুড়ির দেশবন্ধুপাড়ার বাসিন্দা রিতা ভৌমিক জানান বাবা চিকিৎসা করাতে গিয়েছিলেন হায়দাবাদের এশিয়ান ইনস্টিটিউট গ্যাসট্রোলজিতে। ১৪ ডিসেম্বর রওনা দেন ১৬ ডিসেম্বর পৌচ্ছায়। এরপর ১৬ তারিখ বিকেল থেকেই তাকে খুজে পাওয়া যাচ্ছে না। ঘটনার বিষয়ে ঐ এলাকার থানাতে জানানো হলেও এখনো পর্যন্ত তার খোজ পাওয়া যায় নি।সেকারনে মুখ্য মন্ত্রীর দারস্থ হওয়া ছাড়া কোনো পথ খোলা নেই। সত্যেন্দ্রনাথ বাবুর মেয়ে জামাই অনুপ ভৌমিক  বলেন,  ১৪ তারিখ জলপাইগুড়ি থেকে গৌহাটি সেকেন্দ্রাবাদ এক্সপ্রেসে তার অপর মেয়ে ববিতা দাস মেয়ে জামাই বিশ্ব দাস ও স্ত্রী ঝর্ণা ঘোষ সহ সত্যেন্দ্র বাবু ট্রেনে উঠেন। এরপর ১৬ তারিখ হোটেলে পৌছালে বিকেলে হোটেল থেকে শ্বশুর মশাই বের হন ২৫ হাজার টাকা নগদ নিয়ে। এরপর এখন ফিরে আসেনি তিনি। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় থানা ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন গুলিকে জানালে তাদের মাধ্যমে কোনো খোজ মিলছে না। বুধবার নিখোজের পরিবারের পক্ষ থেকে জলপাইগুড়ি পুলিশ সুপারের সঙ্গে দেখা করেন। পাশাপাশি সাংসদ বিজয় চন্দ্র বর্মনকেও জানানো হয়েছে তিনিও খোজ খবর নিচ্ছেন।

ছবিঃ সুপ্রিয় বসাক (টী.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!