সোমবারও সরলো না ইসলামপুর দারিভিট হাই স্কুলের পোস্টার ব্যানার

দীপঙ্কর দে (টি.এন.আই ইসলামপুর) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টি.এন.আই, ফালাকাটা, ৮ই জানুয়ারি, ২০১৯: সোমবারও দারিভিট হাই স্কুলের পোস্টার ব্যানার খোলার বিষয়ে হাইকোর্টের নির্দেশ পালনে ব্যর্থ ইসলামপুর মহকুমা প্রশাসন। মহকুমা শাসকের সাথে দারিভিট হাইস্কুলে বৈঠকের পর অভিভাবকরা রাজী হয়ে পোস্টার খুলতে গেলে পড়ুয়াদের বাধায় এদিনও স্কুল থেকে সরলো না পোস্টার। জানা গিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার অভিভাবকদের দায়ের করা মামলার ভিত্তিতে স্কুলে পঠন পাঠনের স্বাভাবিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনার পাশাপাশি দারিভিট হাই স্কুল থেকে সমস্ত পোস্টার ব্যানার ৪ জানুয়ারী অর্থাৎ গত শুক্রবারের মধ্যে প্রশাসনকে সরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। সেইমতো গত শুক্রবার থেকেই ইসলামপুর মহকুমা প্রশাসন দফায় দফায় হাইকোর্টের নির্দেশ পালনে সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণ করলেও প্রথমে নিহতের পরিবার ও গ্রামবাসীদের বাঁধা এবং আজকে স্কুলের পড়ুয়াদের বাঁধায় দারিভিট হাই স্কুল থেকে সরানো গেল না পোস্টার। এদিন ইসলামপুরের মহকুমা শাসক নিহতের পরিবার ও জনা কয়েক গ্রামবাসীদের নিয়ে দারিভিট হাই স্কুলে পোস্টার খোলার বিষয়ে বৈঠক করেন। বৈঠক শেষে নিহত ছাত্র তাপস বর্মনের মা মঞ্জু বর্মন বলেন, হাইকোর্টের নির্দেশ আছে পোস্টার খুলে দেওয়ার, কোর্টকে তো আর আমরা অসম্মান করতে পারি না। তাই ধরনা মঞ্চ থাকবে কিন্তু স্কুলের পোস্টারগুলো খুলে দিচ্ছি। অন্যদিকে নিহতের পিতা নীলকমল সরকার ও বাদল বর্মন স্কুল থেকে পোস্টার খুলতে শুরু করতেই কিছু পড়ুয়া এসে বাধা দেয়। মহকুমা শাসককে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে পড়ুয়ারা। ছাত্রী জয়ন্তী মন্ডল বলেন, আমাদের স্কুল আমাদের পোস্টারে কোনও অসুবিধা হচ্ছে না ওনাদের এত অসুবিধা কোথায়। সিবিআই তদন্ত না পাওয়া পর্যন্ত পোস্টার এখান থেকে সরবে না। কোর্ট মিথ্যাকে সত্যি বানিয়ে দিলেই কি আমাদের মানতে হবে। ইসলামপুরের মহকুমা শাসক মনীশ মিশ্র বলেন, পোস্টার খোলার ব্যাপারে বৈঠক করলাম অভিভাবকরা রাজী হয়ে পোস্টার খুলতে গেলে ছাত্র ছাত্রীরা এসে বাধা দেয়। তাঁদের বোঝানো হচ্ছে আশাকরি ওনারা বিষয়টি বুঝবেন।

ছবি: দীপঙ্কর দে (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!