৪০ বছর অপেক্ষার পর শুরু হল ওদলাবাড়ি গ্রামীণ হাসপাতাল পরিষেবা

সুপ্রিয় বসাক (টী.এন.আই ধুপগুড়ি) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই, মালবাজার, ৭ই মে, ২০১৮: ৪০ বছর অপেক্ষার অবসান, চালু হল গ্রামীন হাসপাতালের পরিষেবা। সোমবার থেকে চালু হল মালবাজার মহকুমার ওদলাবাড়ির গ্রামীণ হাসপাতালের পরিসেবা। অপেক্ষার অবসানে এলাকায় খুশির উচ্ছাস। ২০১১ সালে এলাকাবাসির দাবি মত ওদলাবাড়িতে তৈরি হয় ওদলাবাড়ি গ্রামীণ হাসপাতাল। ৩০ বেডের এই হাসপাতালটি পুর্ত দপ্তর প্রায় ৬ কোটি টাকা ব্যায়ে তৈরি করে। গত মাসেই এই হাসপাতালের কাজ প্রায় শেষ হয়ে যায়।সোমবার থেকে এই হাসপাতালের পরিসেবা চালু হওয়ায় খুশি এলাকার মানুষ। এই হাসপাতালের চিকিৎসক দীপক রঞ্জন দাস বলেন, আজ এই হাসপাতালের পরিসেবা চালু হয়ে গেলেও আগামিতে মুখ্যমন্ত্রী এই হাসপাতাল আনুষ্ঠানি ভাবে উদ্বোধন করবেন। ইতি মধ্যে ৪ জন চিকিৎসক, ৯ জন নার্স, গ্রুপ ডি ৭ জন এবং সুইপার ৪ জন রয়েছে।

৩০ বেডের এই গ্রামীণ হাসপাতালে ওটি, লেবার রুম, মেল, ফিমেল বেড, নিউ ব্রন বেবিদের রাখার ব্যাবস্থা রয়েছে। এছারা রয়েছে ইমার্জেন্সি রুম,  নার্স এবং চিকিৎসকদের রাতে থাকার ব্যাবস্থা। আগানিতে এক্সরে মেশিন আসছে এই হাসপাতালে। ইতি মধ্যে ৫ জন মহিলা ভর্তিও রয়েছে এই হাস পাতালে।এলাকার বাসিন্দা নির্মল রায়, মনোজ গুপ্তা, রমেশ রাই দের বক্তব্য, আমরা খুব খুশি। এত দিন রাতে কেউ অসুস্থ হলে মালবাজার, জলপাইগুড়ি অথবা শিলিগুড়ি নিয়ে যেত হত। আর এতে অনেক রোগী রাস্তায় মারাও গেছে। আমাদের এই এলাকার চারদিকে চা বাগান, বনবস্তী এবং পাহাড়ের একাংশের মানুষের বসবাস। সেই কারনে এলাকায় একটি হাসপাতালের দাবি ছিল। নতুন এই রাজ্য সরকার এই হাসপাতাল তৈরি করায় সরকারকে ধন্যবাদ।

ছবিঃ সুপ্রিয় বসাক (টী.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!