ভাগাড়ের মাংসকাণ্ডের পর শিলিগুড়িতে অবৈধভাবে গোমাংসের বিক্রিতে চাঞ্চল্য

অভিজিত দাস (টী.এন.আই শিলিগুড়ি) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই শিলিগুড়ি ২৯শে এপ্রিল, ২০১৮: একটি ধর্মীয় স্থানের সামনে গোমাংস কেটে বিক্রি করার অভিযোগে উত্তেজনা ছড়াল শিলিগুড়ির চম্পাসারি মোড় এলাকায়। ঘটনাটি কেন্দ্র করে পুলিশ এক বেক্তি কে আতক করে। এলাকার লোকেদের অভিযোগ কোন নিয়ম না মেনে ওই দোকানে গোমাংস বিক্রি করে আসছিল বহু দিন ধরে। আরও অভিযোগ ছিল এই দোকান থেকে নিত্যদিন সমগ্র শিলিগুড়ি জুড়ে মূলত প্রধান নগর এলাকায় বেশ কিছু মোমো বিক্রেতা এবং রেস্তেরার মালিক গোমাংস কিনে নিয়ে যেত। বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার স্থানীয় বাসিন্দারা আপত্তি জানিয়েছিলেন।

তবে প্রশাসন থেকে এই আপত্তির কথা কেউ কর্ণপাত করেনি। কলকাতার ভাগারের মাংসকাণ্ডের পরে এলাকার বাসিন্দারা দোকানটি ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। খবর পেয়ে প্রধাননগর থানার পুলিশ সেখানে গিয়ে উপস্থিত হয় এবং পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করে। সুব্রত দাস নামে এক এলাকার বাসিন্দা সংবাদ মাধ্যমকে জানায় যে বহুদিন ধরে এখানে এই ব্যাবসা হয়। এখন জানাজানি হওয়াতে দোকানে কর্মচারীরা বিভিন্ন জায়গায় ছোট ছোট সন্দেহহীন জায়গায় গোমাংস কেটে বিক্রি করছিল। তিনি আরও বলেন এই দোকানের এক বেক্তি চঞ্চল লাকরা কে হাতেনাতে ধরে ফেলে এলাকাবাসীরা। পুলিশ এসে চঞ্চল লাকরা কে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশের গাড়ি ভাঙচুরও করা হয়। এরপরেই পুলিশি টহল শুরু হয় এবং পরিস্থিতি আয়ত্তে আসে। বর্তমানে এলাকায় চাপা উত্তেজনা রয়েছে।

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!