কুচবিহারে সাংবাদিকদের ওপর রাজনৈতিক কর্মীদের হামলা, প্রতিবাদ উত্তরবঙ্গে

মনোজ সরকার (টী.এন.আই কুচবিহার), আর. সুব্রত (টী.এন.আই শিলিগুড়ি) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই কুচবিহার ও শিলিগুড়ি ৪ঠা এপ্রিল, ২০১৮: এবার বিরোধীদের নয়, খবর সংগ্রহে  বাধা দিতে সাংবাদিকদের উপর ঝাপিয়ে পরলো শাসক দলের কর্মী সমর্থকেরা। গুরুতর আহত হলেন ৩ সাংবাদিক, আহত সাংবাদিকরা কোচবিহার এম.জে.এন হাসপাতালের আই.সি.সি.ইউ তে ভর্তি। এদিন ঘুঘুমারি মনোনয়ন জমা দেওয়ার খবর সংগ্রহ করতে যান কুচবিহারের সাংবাদিকরা। অভিযোগ ঘুঘুমারি বিডিও অফিসে মনোনয়ন জমা দিতে যাওয়া বিরোধী দলের প্রার্থীদের বাধা দেন শাসক দলের কর্মী সমর্থকেরা।

সেই ছবি তুলতে গেলে সাংবাদিকদের উপর ঝাপিয়ে পরে শাসক দলের কর্মী সমর্থকেরা। মাটিতে ফেলে পেটানো হয় সাংবাদিকদের, কেড়ে নেওয়া হয় ক্যামেরা, মোবাইল। আহত সাংবাদিক চন্দন দাস, দেবাশিস বিশ্বাস ও শশীকেশ রায় কে উদ্ধার করে এম.জে.এন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী শ্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ ঘটনাস্থলে যাওয়ার পাশাপাশি, আহত সাংবাদিকদের দেখতে এম.জে.এন হাসপাতালে আসেন। “সাংবাদিকদের উপর আক্রমণের ঘটনার তীব্র নিন্দা  করে তিনি বলেন এই ঘটনার সাথে তৃনমূল কংগ্রেসের কোন কর্মী সমর্থক যুক্ত নয়, দোষীদের উপযুক্ত শাস্তি হবে বলে তিনি আশ্বাস দেন।

এদিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে কোতয়ালি থানার আই.সি শ্রী সমীর পাল কে কার্যত ধমকের সুরে মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ বলেন “পুলিশ-এর সামনেই ঘটনা ঘটছে, অথচ পুলিশ পুতুলের মত দাড়িয়ে দেখছে”। অন্য দিকে সাংবাদিকদের উপর আক্রমণের প্রতিবাদে জেলা পুলিশ সুপারের দপ্তরের সামনে ধর্ণায় বসেন কোচবিহারের সাংবাদিকরা। সাংবাদিকদের উপর আক্রমণের ঘটনার তীব্র নিন্দা করেন জেলার সাধারন মানুষ থেকে শিক্ষা সাংস্কৃতিক জগতের অনেকেই। এদিকে শিলিগুড়িতেও তীব্রভাবে প্রতিবাদ জানানো হয় এই ঘটনার।

আজ সন্ধ্যে বেলায় শিলিগুড়ি জার্নালিস্ট ক্লাবের সামনে মোমবাতি জ্বালিয়ে ও প্রতিবাদ প্ল্যাকার্ড টানিয়ে প্রতিবাদ জানান ক্লাবের সদস্যরা। ক্লাবের সম্পাদক শ্রী অংশুমান চক্রবর্তী জানান – এই ধরনের হামলা সাংবাদিকদের ওপর এই প্রথম নয়। এর আগেও অনেকবার সারা দেশে এমন হামলা হয়েছে। ইদানীং আরও বেশি হচ্ছে। এবার শুধু আমারা নয় অনেক সামাজিক সংগঠন আমাদের এই প্রতিবাদে সামিল হবে। সাধারন লোক ও এগিয়ে আসবে। সমাজ বিরোধীদের বিরুদ্ধে আমাদের প্রতিবাদ চলবে”। শুধু শিলিগুড়ি নয় সাংবাদিকদের প্রতিবাদ তুফানগঞ্জেও হয়েছে।

ছবিঃ মনোজ সরকার (টি.এন.আই) ও সংবাদ চিত্র

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!