পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে মেখলীগঞ্জে জাতীয় কংগ্রেসের মেখলীগঞ্জ সফর, শিবির

স্বপন রায় বীর (টী.এন.আই মেখলীগঞ্জ) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই মেখলীগঞ্জ ২৫শে ফেব্রুয়ারি ২০১৮: মেখলিগঞ্জের রাজনীতির মাঠে ফের একবার পদার্পণ জাতীয় কংগ্রেস দলের উচ্চ নেতৃত্বের পদার্পণ, আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনে নিজেদের সাজাতে এই প্রস্তুতি বলে মনে করছেন রাজনৈতক বিশেষজ্ঞরা৷ উল্লেখ্য যে বাম জামানায় মেখলিগঞ্জের মাটিতে জাতীয় কংগ্রেস অনকাংশই ভোট বাংকে এগিয়ে ছিল, কিন্তু বর্তমান তৃণমূল সরকারের জামানায় শুষ্ক নদীতে নৌকা যেমন দাঁড়িয়ে থাকে তেমনি অবস্থা বলে অনেকেই মনে করছেন৷ তবে, এবার পাল্টে গেছে দিনের লড়াই, অনান্য রাজনৈতিক দলের সাথে টেক্কা দিতে কোমর বেঁধেই মাঠে নামবেন জাতীয় কংগ্রেস এমন টাই দাবি মেখলিগঞ্জের কংগ্রেস শিবিরের৷ আজ কুচবিহার জেলার মেখলিগঞ্জ এর ভারত বাংলাদেশ সীমান্তে তিন বিঘা করিডোর ও ভোটবারিতে অস্থায়ী শিবিরে বসববাস কারি দের সাথে সাক্ষাৎকার সহ সমস্যার বিষয়ে আলোচনা বসেন জাতীয় কংগ্রেস এর প্রতিনিধিরা৷ এই সফরে উপস্থিত ছিলেন সর্বভারতীয় যুব কংগ্রেস তথা পশ্চিম বঙ্গের যুব কংগ্রেসের ইনচার্জ তৌকির আলম সাহেব, পশ্চিমবঙ্গের প্রদেশ কংগ্রেস সদস্যে বিশ্বজীৎ সরকার ও কোচবিহার জেলা যুব কংগ্রেস সভাপতি জয়ন্ত চন্দ। তৌকির আলম সংবাদ মাধ্যেমে জানান বাংলাদেশ থেকে ছিটমহল বিনিময় প্রথার মাধ্যেমে নিয়ে আসে এবং ঘোষনা অনুযায়ী যে সব যুযোগ সুবিধা নবাগত ভারতীয় দের দেওয়ার কথা ছিল তা কিছুই কেন্দ্র ও রাজ্যে সরকার উভয় তেমন কিছূ করেন নি ,বরং এদের উপর সঠিক প্রাপ্য না দিয়ে, এদের উপর মানবিক অত্যাচার করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন। তিনি জানান অস্থায়ী শিবিরের মানুষ গুলি বাচার তাগিদে মানুসের ঘরে ঘরে গিয়ে একমঠো অন্নের জন্যে সারাদিন অন্যের বাড়িতে  কাজ করে চলছেন। এদের প্রতি কেন্দ্র ও রাজ্যে সরকার কেহই এদেরকে এখন আর গুরুত্ব দিচ্ছেন না। বিজেপি সরকার গঠনের প্রায় চার বছর হতে চলছে কিন্তু সাধা্রকা মানুষ হয়রানি আর কত দিন সহ্যে করে চলবে। তিনি অভিযোগ করেন এই সরকারের আমলে সিমান্তে চরাচালান বারছে। অধিকাংশ জায়গাতে সীমান্তে এখনো কাটাতারের বেড়া হয়নি, সীমান্তে সাধারণ মানুস নিরাপত্তার অভাব বোধ করতে চলছে। বি.এস.এফ জওয়ানদের নিজেদের কোন নিরাপত্তা নেই। প্রতিদিন সিমান্তে কিছুনা কিছু বি.এস.এফের জওয়ান দুষ্কৃতিদের দ্বারা নিগৃত হন। তৌকির আলম জানান আমি খুব শিগ্রই দিল্লী যাব এবং এসব অভিযোগের কথা সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধীকে জানাব। রাহুল গান্ধীকে তিনবিঘা করিডোর ও ছিটমহল ক্যাম্পে আসার আমন্ত্রন জানাবেন, সামনে পঞ্চায়েত নির্বাচন এই পঞ্চায়েত নির্বাচন কে সামনে রেখে আমরা ধারাবাহিক ভাবে আন্দোলনের কর্মসুচী অনুযায়ী কাজ চালিয়ে যাব। জনসাধরন আমাদের পাশে আসে, আমাদের আদর্শ ও ন্যায় নীতি দেখে জনগন আমাদের বিপুল ভোটে জয়ী করবে এটাই আশা করি। তাই সকল কর্মীদের সঠিক ভাবে সাংগঠনিক কাজকর্ম চালিয়ে যাওয়ার কথা বলেন৷ আনুষ্ঠানিক ভাবে তেমন কোন সভা না হলেও জাতীয় কংগ্রেস এর প্রতিনিধিরা সফর শেষে জানান এবারের পঞ্চায়েত ভোটে মেখলিগঞ্জের মাটিতে অনেকটাই এগিয়ে যাবেন এটাই আশা রাখেন৷

ছবিঃ স্বপণ রায় বীর (টী.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!