লাখ টাকার লটারি জিতে হরিরামপুরের হত দরিদ্র মৎসজীবি পড়লেন বিপাকে

দীপঙ্কর মিত্র (টী.এন.আই বালুরঘাট) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই হরিরামপুর ১০ই ফেব্রুয়ারি ২০১৮: অবশেষে ধনদেবী এলেন নুন আনতে পান্তা ফুরোনোর সংসারে। লটারির টিকিট কেটে ২৬ লাখ টাকা পুরস্কার জিতলেন হরিরামপুর থানার মহেন্দ্র গ্রামের এক বাসিন্দা। সেই বাসিন্দা পেশায় মৎসজীবি প্রতিদিন হাড়ভাঙ্গা খেটে রোজগার করে ২০০ টাকা বাড়িতে বৃদ্ধ মা কে নিয়ে সংসারের যাবতীয় দায়দায়িত্ব পাল করেন। এমন অবস্থায় গ্রামে এক লটারী বিক্রেতার কাছ থেকে তিনি ৩০ টাকার ৫টি লটারি কেনেন। পরে তিনি লটারী মিলিয়ে দেখেন। মিজোরাম স্টেট লটারি ১ম পুরস্কার ২৬ লাখ টাকার লটারী তার কাছে থাকায় আনন্দে দিশেহারা হয়ে পরেন তিনি। এতো টাকা নিয়ে  কোথায় যাবে কীকরবে আতঙ্কিত হয়ে পরে বছর ৩০শের সেই বেক্তি। মা কে সঙ্গে নিয়ে সোজা হরিরামপুর থানার দারহস্থ হয়। থানায় গিয়ে তিনি কর্তব্যরত অফিসারকে জানান ও সাহায্য চান। এই খবর পেয়ে থানায় আসেন হরিরামপুর থানার আই.সি শ্রী বিনোদ ছেত্রী। সেই মৎসজীবির কাছে সমস্ত ঘটনা শোনে বিনোদ বাবু, এবং তাকে সব রকম সাহায্যের আশ্বাস দেন। এই বিষয় হরিরামপুর থানার আই.সি শ্রী বিনোদ ছেত্রী জানান একটি হত দরিদ্র দিনমজুর মিজোরাম সরকার দ্বারা পরিচালিত লটারীতে ২৬ লাখ ১ম পুরস্কারের লটারিটি তার কাছে আছে। কিন্তু এতো টাকার কথা শুনে দিশেহারা হয়ে সেই বেক্তি থানায় এসেছে, থানার পক্ষ থেকে সব রকম সাহায্যের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে এমনকি তার নিরাপত্তার বিষয়টিও দেখা হবে। এখন নিরাপত্তার স্বার্থে লিখিত ভাবে পুরস্কৃত টিকিটটি থানায় জমা আছে। নিয়ম মেনে যাতে করে সেই মৎসজীবি উপযুক্ত টাকা পায় সেই বিষয় গুলি দেখা হবে।

ছবিঃ দীপঙ্কর মিত্র(টী.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!