‘কুমীর সড়াতে গিয়ে হাঙ্গর আনবেন না’ – মানিক সরকার

অরুনাংশু মৈত্র (টি.এন.আই ফালাকাটা) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টি.এন.আই, ফালাকাটা, ৬ই মার্চ, ২০২১: ভোটের প্রচারে ফালাকাটাতে এলেন ত্রিপুরার প্রাক্তন মূখ্যমন্ত্রী শ্রী মানিক সরকার। গতকাল অর্থাৎ সোমবার সন্ধ্যায় ফালাকাটা বিধানসভা কেন্দ্রের সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী শ্রী ক্ষিতিষ চন্দ্র রায়ের সমর্থনে সভা করেন তিনি। এদিন নির্ধারিত সময়ের বেশকিছুটা পরে তিনি ফালাকাটা জুনিয়র বেসিক স্কুল ময়দানে আসেন। সিপিআইএম পলিটব্যুরো সদস্য তথা ত্রিপুরার প্রাক্তন মূখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারকে কাছে পেয়ে উচ্ছ্বসিত হয় এলাকার সিপিআইএম কর্মী সমর্থকরা। সভার শুরু থেকেই তৃণমূল ও বিজেপিকে আক্রমণ করেন তিনি। তিনি বলেন, “২০১১ সালে মানুষ বামফ্রন্টকে সড়িয়ে তৃণমূল কংগ্রেসকে ক্ষমতায় এনেছিল। এখন বুঝতে পেরেছে কি ভুল করেছে। এখন আবার বিজেপি বলছে পরিবর্তনের পরিবর্তন চাই। বলতে দিধা নেই নিজের পায়ে নিজেরা কুড়ুল মারছেন।” করোনা নিয়ে বিজেপির নিন্দা করে তিনি আরও বলেন, “দুই ঘন্টার নোটিশে সব স্কুল, কলেজ, অফিস, আদালত সব বন্ধ করে দেওয়া হলো। কি হবে শ্রমিকদের, কি হবে যারা দিন আনে দিন খায়। তার ব্যবস্থা করেনি। উল্টে বাজেটে স্বাস্থ্য, শিক্ষায় বরাদ্দ কমিয়েছে।” ত্রিপুরায় বামফ্রন্ট সরকারের পরিবর্তন সম্পর্কে তিনি বলেন, “সরকারের বিরুদ্ধে দূর্নীতি বা অন্য কোন অভিযোগ তুলতে পারেনি। তারা বলেন, মানিক তুমি ছাড়া এখন ত্রিপুরার মানুষ বুঝছে তারা কি ভুল করেছে। গত লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের দুটি আসন রিগিং করে দখল করা হলো। নির্বাচন কমিশন নির্বাক। সুপ্রিম কোর্ট, নির্বাচন কমিশন সবাই দলদাসে পরিণত। শুধু সাধারণ মানুষ নয় ডাক্তার, ছাত্র, উকিল সবাই শাসকদলের হাতে এখন আক্রান্ত। যে সাংবাদিকরা রাজ্যে বামফ্রন্টের বিরুদ্ধে বলেছিল। সেই সাংবাদিকরা আজ আক্রান্ত। ত্রিপুরায় ২৫ জন সাংবাদিককে শারীরিকভাবে আক্রান্ত করা হয়েছে।” তিনি রাজ্যের এবারের বিধানসভা নির্বাচন নিয়ে বলেন “কুমীর সড়াতে গিয়ে হাঙ্গর আনবেন না। বিকল্প একটাই সংযুক্ত মোর্চা।”

ছবি: অরুনাংশু মৈত্র (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!