পিতার মত প্রাক্তন সহকর্মীর মৃত্যুতে মাথা মুন্ডন করলেন বানারহাটের শিক্ষক আশফাক আহমেদ

অঙ্কিতা সেন (টি.এন.আই বানারহাট) । টি.এন.আই সম্পাদনা জলপাইগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টি.এন.আই, বানারহাট, ৪ঠা ডিসেম্বর ২০১৮: সারা দেশ যখন কোন মানুষ কি খাবে,  কি পরিধান করবে এই নিয়ে বহুধাবিভক্ত,  গোটা দেশ ব্যাপী এক অদ্ভুত একমুখীনতার বাতাবরণ তৈরি করবার বলপূর্বক উদ্যোগ প্রবহমান।  এরই মাঝে ডুয়ার্সের অর্থনৈতিক ভাবে পিছিয়ে পড়া বানারহাটে তৈরি হল সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও সামাজিক দায়বদ্ধতার এক অনন্য নজির। বানারহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক সঞ্জন বিশ্বাস সম্প্রতি প্রয়াত হন। সঞ্জন বিশ্বাসের সাথে চাকরি করতেন বর্তমান বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আশফাক আহমেদ। সঞ্জন বিশ্বাসের পুত্র সন্তান না থাকার শূন্যস্থান অনেকটাই পূরণ করে দিলেন আশফাক বাবু। জানা গিয়েছে হিন্দু সঞ্জন বিশ্বাসের পারলৌকিক কাজের অন্যতম অঙ্গ ‘ঘাট কাজ’ এর সময় মথা মুণ্ডন করে শাস্ত্রীয় কর্মসূচী নিজের মতোও করে পালন করলেন আশফাক বাবু। তাকে এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে বিষয়টি তার একান্ততাত ব্যক্তিগত বলে তিনি এড়িয়ে যান। জানা গিয়েছে সঞ্জন বাবুর সাথে তার সখ্যতা পিতা-পুত্রের মতোও ছিল। এই আত্মিক সম্পর্কই তাকে মানুষ হিসেবে এই ধরনের কাজ করার জন্য উদ্বুদ্ধ করেছে। তিনি বলেন মুর্শিদাবাদ থেকে জলপাইগুড়ি জেলার অচেনা পরিবেশে এসে মানিয়ে নেওয়া ও  নানান অপ্রতিকূলতার সাথে লড়াই করার অনুপ্রেরণা ও সাহস সঞ্জন স্যার তাকে জুগিয়েছে। সঞ্জন স্যার এর উদার মানসিকতা দ্বারা তিনি দারুণ ভাবে প্রভাবিত ছিলেন। বিষয়টি ছোট হলেও বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে অসহিষ্ণুতার বাতাবরণের মাঝে আশফাক বাবুর এই বিরলতম নিদর্শন ও উদার মনের পরিচয় সমাজে দৃষ্টান্ত বলেই সকলে মনে করছেন।

ছবি: নিজস্ব চিত্র (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!