এবার জলপাইগুড়ির সোনার মেয়েকে চাকরি ও ৩০ লক্ষ টাকার পুরষ্কার দিল কেন্দ্রীয় সরকার

ভাস্কর চক্রবর্তী (টী.এন.আই) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই, জলপাইগুড়ি ১লা সেপ্টেম্বর, ২০১৮: গত বুধবার রাতে হেপট্যাথলনে জাকার্তায় ভারতীয় ধ্বজ ওড়ানোর পরের দিনে ফোন গিয়েছিল মুখ্যমন্ত্রীর তরফে। তার ঠিক দু’দিন পরেই কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে এলো শুভেচ্ছা বার্তা এবং সেই সঙ্গে মিলল রাজ্যের দেওয়া উপহারের প্রায় তিনগুণ আর্থিক পুরস্কারের আশ্বাস। এই দিন অর্থাৎ আজ বেলা ১২:৩০টা নাগাদ এশিয়াডের সোনা মেয়ের বাড়িতে যান দার্জিলিংয়ের সাংসদ এস.এস আলুওয়ালিয়া। সেখানেই স্বপ্নার পরিবারের সকল সদস্যদের শুভেচ্ছা জানান তিনি। স্বপ্নার মায়ের সঙ্গে কেন্দ্রীয় ক্রীড়া ও যুব কল্যাণ দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী রাজ্যবর্ধন সিং রাঠোরের সঙ্গে ফোন মারফত কথা বলান এবং মন্ত্রী স্বপ্নার এমন সাফল্যের জন্য তার মাকে অনেক শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন। এস.এস.আলুওয়ালিয়া জানান, কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে ৩০ লক্ষ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। এবং জাকার্তা থেকে ভারতের দিল্লির মাটিতে পা দেওয়ার পর সোনাজয়ী খেলোয়ারদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী স্বয়ং ব্যক্তিগত ভাবে দেখা করবেন। এর আগেও জলপাইগুড়ির পাতাকাটার ঘোষপাড়ার স্বর্ণজয়ী মেয়ের জন‍্য রাজ্য সরকারের তরফ থেকে ১০ লক্ষ টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে বলে জানা গেছে। দেওয়া হবে সরকারি চাকরিও। তবে, কবে স্বপ্নাকে সরকারের তরফ থেকে সম্বর্ধনা দেওয়া হবে সে বিষয়ে এখনো কিছুই চূড়ান্ত করা হয়নি। স্বপ্না ফিরে এলেই একটি দিন ধার্য্য করা হবে বলে জানান গেছে। ক্রীড়া মহলের প্রজ্ঞদের মতে, দরিদ্রতাকে হার মানিয়ে স্বপ্না সোনা এনেছে ঘরে, তাই এই লড়াইয়ের পথে দারিদ্রতা যেন আর কোনো বাধা না হয়ে উঠতে পারে সেটা এখন দেখার দায়িত্ব সরকারের। একটু সাহায্য করলেই স্বপ্নার মত মেয়েরা যে ক্রীড়া জগতে ভারতের নাম স্বর্ণাক্ষরে লিখবে এমনটাই আশা ক্রীড়া মহলের এক বড় অংশের।

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!