ধুপগুড়িতে রাতের ঝড়ের ক্ষতি রবিবার প্রচারের ইস্যু হল শাসক এবং বিরোধীদের

সুপ্রিয় বসাক (টী.এন.আই ধুপগুড়ি) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই ধুপগুড়ি ২২শে এপ্রিল, ২০১৮: রাতের ঝড়ের ক্ষতিকে ইস্যু করে পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রাক মুহুর্তে রবিবাসরীয় প্রচার শাসক এবং  বিরোধী দলগুলির। শনিবার রাতে আচমকা ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয় জলপাইগুড়ির ধূপগুড়ি ব্লকের বারোঘরিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের জাকাইকোনা ও পাটকিদহ এলাকা। গাছ পড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয় প্রচুর ঘরবাড়ি। রবিবার সকালে ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছায় ব্লক প্রশাসনের কর্মীরা। এদিন মাগুরমারি ২ নং গ্রামেও ঝড়ে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। সেখানেও তৃনমূল কংগ্রেসের প্রতিনিধিরা ঘটনাস্থলে পৌছে ক্ষতিগ্রস্তদের সঙ্গে কথা বলেন। তাদের কথায় এখন না হোক নির্বাচনের পর,ক্ষমতায় এসে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাড়ানোই তৃনমূল কংগ্রেসের মূল লক্ষ্য। ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে থাকার আশ্বাসের পাশাপাশি ব্লক প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সিপিএম ও তৃনমূল কংগ্রেসের বিদায়ী দুই জন প্রতিনিধিকেও ঘুরতে দেখা যায়।

পাটকিদহ এলাকায় তৃনমূল কংগ্রেস নেতার তথা পঞ্চায়েত সমিতির বিদায়ী কর্মাধ্যক্ষ দীপু রায় এবং পঞ্চায়েত সমিতির বিদায়ী সহ সভাপতি তথা সিপিএম নেতা রাজকুমার রায়কে ব্লক প্রতিনিধির কাছে ক্ষতিপূরন চেয়ে দাবী করতেও দেখা গিয়েছে। বারোঘরিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের জাকাইকোনা এলাকায় সহিদুল মহম্মদ বলেন, রাতে একটি বড় গাছ ভেঙে বাড়ির ওপর পড়ে।ঘরের ভেতর ঘুমিয়ে থাকা ছেলে রাজীব আলমের পায়েত ওপর গাছটি পড়ে। ঘটনায় সামান্য আহতও হয়।রাতেই গাছ সরিয়ে ছেলেকে উদ্ধার করেন তার বাবা। তৃনমূল নেতা দীপু রায় বলেন, তৃনমূল কংগ্রেস বরাবর মানুষের পাশেই ছিল তাই আমরাই নির্বাচনে জয়ী হবো। কিন্তু নির্বাচন বা তার প্রচার মানুষের ক্ষতির সামনে কিছুই না। অপরদিকে সিপিএম নেতা রাজকুমার রায় বলেন, নির্বাচন প্রক্রিয়া চলতেই পারে। কিন্তু মানুষের ক্ষতির ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। তারা যাতে ক্ষতিপূরন পায়, তাই ব্লক প্রশাসনের কাছে দাবী জানানো হয়েছে। এদিন এলাকা ঘুরে ব্লকের প্রতিনিধি দল ক্ষতিগ্রস্তদের নাম নিয়ে গেছে। প্রশাসনের কাছে দাবী জানিয়ে মানুষকে রেহাই দেওয়াই আমাদের লক্ষ্য। নির্বাচনী বিধি জারি থাকলেও ব্লকের কাছে মজুত ত্রান দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন জলপাইগুড়ি জেলার অতিরিক্ত জেলাশাসক সুমেধা প্রধান। তিনি বলেন, এই ঘটনা গুলি জরুরি কালীন ইশ্যু।

ছবিঃ সুপ্রিয় বসাক (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!