মেখলীগঞ্জে তৃনমূল – বিজেপি সংঘর্ষ অব্যাহত, গুলি বিদ্ধ বিজেপি কর্মী

স্বপন রায় বীর (টী.এন.আই মেখলীগঞ্জ) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই মেখলীগঞ্জ ২১শে এপ্রিল, ২০১৮: শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপি অব্যাহত সংঘর্ষে উত্তপ্ত মেখলীগঞ্জ৷  বিজেপির কর্মীসভায় হামলা চালায় তৃণমূল এমনই অভিযোগ বিজেপির৷ এদিন মেখলীগঞ্জের উঁচলপুকুরির ভেলকরপর এলাকায় এই ঘটনা হয় বলে শোনা যায়। অভিযোগ –  ইট – পাথর দিয়ে হামলা চালান হয় বিজেপি কর্মীদের। হামলায় গুরতর যখম হন এক বিজেপি কর্মী। শ্রী প্রভাত রায় নামে ওই আহত বিজেপি কর্মীর পায়ে গুলি লাগে বলে অভিযোগ৷ অন্যদিকে, এই অভিযোগ কে মিথ্যা বলে উড়িয়ে দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের পঞ্চায়েত সমিতির প্রার্থী তথা তৃণমূল যুব কংগ্রেস সভাপতি শ্রী সঞ্জীব চন্দ্র রায়৷ তিনি জানান বিজেপি নূতন এবং পুরনো দলের মধ্যেই সংঘর্ষ হথ। আমাদের কর্মিরা এই সংঘর্ষে যুক্ত নেই৷ আহত বিজেপি কর্মীরা পরিবারের পক্ষ থেকে এমন অভিযোগ আনা হয় গুলি চালিয়েছে দুষ্কৃতকারীরা৷ সূত্রে খবর – বিজেপি দলের কর্মী সভা চলছিল, একই সাথে এই অঞ্চলে তৃণমূল কংগ্রেস এর মিছিল ও ছিলো, উপস্থিত ছিলেন মেখলীগঞ্জের প্রথম সারির দুই নেতা শ্রী উদয় রায় এবং শ্রী লক্ষীকান্ত সরকার৷ ঠিক মিছিল চলার দুই ঘন্টা পরেই এই ঘটনাটি ঘটে। ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন মেখলীগঞ্জ থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী৷ আহত বিজেপি কর্মীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়, আহত বেক্তির নাম শ্রী প্রভাত রায়। প্রভাত রায়ের স্ত্রী শ্রীমতী মালতী রায় অভিযোগ দায়ের করেন মেখলীগঞ্জ থানায়। পুরো ঘটনার তদন্তে মেখলীগঞ্জ থানার পুলিশ, তবে গুলি চালনোর অভিযোগ মেনে নেননি। তৃণমূল কোন সংঘর্ষে যুক্ত ছিলো না তৃণমূল, এমনই দাবি করেন অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা শ্রী সঞ্জীব চন্দ্র রায়, অন্যদিকে, বিজেপির পক্ষ থেকে দাবি করা হয় পরিকল্পনা মাফিক এই হামলা। বীরভূমের অনুব্রত মণ্ডলের মত সন্ত্রাস আর হামলা চালাচ্ছে তৃণমূল। আমরা এর বিচার চাই৷ মেখলীগঞ্জ থানার অধীনস্থ এলাকা জুড়ে এই ঘটনা সুত্রে চাপানউতোর অব্যাহত৷ পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে৷

ছবিঃ স্বপন রায় বীর (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!