ইসলামপুর দাদাকে খুনের মামলায় ৯ বছরের কারাদণ্ড ভাইয়ের

দীপঙ্কর দে (টী.এন.আই ইসলামপুর) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই ইসলামপুর ২০শে এপ্রিল, ২০১৮: জমি বিবাদকে কেন্দ্র করে তির মেরে ভাইকে খুনের অভিযোগে দাদার বিরুদ্ধে শুক্রবার নয় বছরের সাজা ঘোষণা করলো ইসলামপুর আদালত। জানা গিয়েছে, শুক্রবার গোয়ালপোখর থানার উত্তরটিলা এলাকার বাসিন্দা ফুল মহম্মদ (৪৫) কে জমি বিবাদের জেরে তির মেরে খুনের অভিযোগে অভিযুক্ত দাদা শের মহম্মদকে নয় বছরের সাজা ঘোষণা করেছে ইসলামপুরের এডিশনাল ডিস্ট্রিক্ট সেশন জজ। ইসলামপুর আদালতের এডিশনাল পাবলিক প্রসিকিউটর মুক্তার আহমেদ বলেন, ২০১৬ সালের গোয়ালপোখর থানার একটি খুনের মামলায় অভিযুক্ত শের মহাম্মদকে নয় বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের সাজা ঘোষণা করেছেন বিচারক এডিজে ওয়ান রমেশ কুমার প্রধান। সরকার পক্ষের ৯ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য প্রমান এবং ১৪টি ডকুমেন্টারি এভিডেন্স এর ভিত্তিতে বিচারক এই রায় এদিন ঘোষণা করেন। এই রায়ে মৃত ফুল মহম্মদের পরিবার খুশি। যদিও অন্যদিকে শের মহম্মদের মেয়ে ইবরিমা খাতুন বাবার সাজা ঘোষণা হওয়ার সাথে সাথেই কোর্ট চত্বরে কেঁদে ফেলেন। কাঁন্না আটকাতে পারেননি শের মহম্মদও। ইবরিমা খাতুন বলেন, আমার বাবাকে ফাঁসানো হয়েছে। আমরা উচ্চ আদালতে যাব। উল্লেখ্য, গোয়ালপোখরের উত্তরটিলা গ্রামে গত ২০১৬ সালের ২৩ নভেম্বর পারিবারিক জমি বিবাদের জেরে দাদা শের মহম্মদের ছোড়া তিরে জখম হয়ে পড়ে ভাই ফুল মহম্মদ। ফুল মহাম্মদকে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালের চিকিৎসক রা উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠায়। সেখান থেকে জখম ফুল মহাম্মদকে কোলকাতার এস এস কে এম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে গত ২০১৬ সালের ২ ডিসেম্বর তাঁর মৃত্যু হয়। ফুল মহম্মদের মৃত্যুর কারণে ওই দিনই শের মহাম্মদকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এরপর থেকে সাজা ঘোষণা পর্যন্ত ইসলামপুরের সংশোধনাগারেই ছিলেন শের মহম্মদ। এদিন ইসলামপুর আদালত চত্ত্বরে হাজির মৃত ফুল মহম্মদের স্ত্রী নজরুনা খাতুন বলেন, আদালতের রায়ে আমি খুশি। মানুষ খুনের মত জঘন্য অপরাধের উপযুক্ত শাস্তিই দিয়েছে আদালত।

ছবিঃ দীপঙ্কর দে (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!