ইসলামপুরে আয়োজিত হল ‘ছায়ানট সংগীত শিক্ষায়তন’ এর বার্ষিক অনুষ্ঠান

সুশান্ত নন্দী (টী.এন.আই সংস্কৃতি) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই ইসলামপুর ২রা এপ্রিল, ২০১৮: চৈতালি সন্ধ্যায় সুর, তাল, লয় আর ছন্দের সিঁড়ি বেয়ে বসন্ত যেন এক জোছনা রাত্রির মাধুরীকে স্পর্শ করল। এমনি এক অনন্য সুন্দর সাংস্কৃতিক প্রেক্ষাপট নির্মিত হয়েছিল ইসলামপুরে। পয়লা এপ্রিল সূর্য সেন মঞ্চে আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে সুনন্দা রায়ের উদ্বোধনী সংগীতের অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উন্মোচিত হল ‘ছায়ানট সংগীত শিক্ষায়তন’ এর বার্ষিক অনুষ্ঠান। সংস্থার অধ্যক্ষা কৃষ্ণা দাসের একক সংগীত পরিবেশন যথার্থই সুন্দর। গানে উদিতায়ন দেবনাথ যেন আগামী দিনের সম্ভাবনা। ‘স্বপ্ন কুমার’ এর শিশু শিল্পীদের নিবেদনে ছিল এক সৌন্দর্যের স্বপ্নময়তা। চন্দ্রিমা সাহার আবৃত্তি পরিবেশনে সে যে তার পারিবারিক ধারাকে বয়ে নিয়ে যাচ্ছে তার আভাস যেন সেখানে প্রস্ফুটিত হল বেশ নান্দনিক ভাবে। শ্রীমতী কেয়া মন্ডল সুরের ধারায় নিবেদন করলেন তার অনুভবকে। প্রগতি সরকারের সংগীতের ভাবনা বিচ্ছুরিত হলো সমস্ত দর্শকদের হৃদয়ে। আইভি বিশ্বাস এর কবিতা আবৃত্তি বেশ সুখশ্রাব্য। একক নৃত্যে স্মৃতিকনা রায় বেশ পরিশীলিত। শ্রীময়ী শিকদারের সংগীত চয়ন ও উপস্থাপনা যেন এক অন্য সুরেলা বসন্তকে মনে করিয়ে দিল। সিলিন্দ্রা বিশ্বাসের আবৃত্তি বেশ সুন্দর। দীপশিখা নন্দী সুরের মোহনায় পৌঁছে দিলেন দর্শকদের অনুভবকে। সংস্থার কচিকাঁচা শিল্পীদের পাশাপাশি অন্যান্যদের সরস্বতী বন্দনা যেন মুহূর্তেই লেপ্টে গেল সকলের চিত্তে।গোটা অনুষ্ঠান বাচিক ভাবনার আবহে সঞ্চালনা করেন চন্দ্রিমা সাহা। অনুষ্ঠানে যন্ত্র সংগীতের আবহে ছিলেন তবলায় দীপঙ্কর রায়, অর্গানে শেখর কর্মকার। এদিন অনুষ্ঠানে মনোনীতা চক্রবর্তী, আইভি বিশ্বাস, পামেলা গুপ্ত, শেফালী দাস সহ বিশিষ্ট জন ও কলা কুশলীদের মঞ্চে সম্মাননা জানানো হয়।উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট বাচিক শিল্পী চন্দন সাহা।

ছবিঃ সুশান্ত নন্দী (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!