সম্প্রতি ‘শ্রুতি মঞ্জিলের’ সাহিত্য আড্ডা আয়োজিত হয়ে গেল ইসলামপুরে

সুশান্ত নন্দী (টী.এন.আই সংস্কৃতি) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই ইসলামপুর ২৭শে মার্চ ২০১৮: মূলত এই বিষয়টিকে সামনে রেখেই শ্রুতি মঞ্জিলের ভালো লাগা প্রিয় কবিতার আড্ডা বেশ জমজমাট হয়ে উঠলো। কবিতার মাঝে মাঝে সুরের আবহ এনে দিল এক রাশ প্রশান্তি। শনিবার স্থানীয় শিবডাঙ্গী পাড়ায় শ্রী উদয় মন্ডলের সহযোগিতায় এবং শ্রুতি মঞ্জিলের পরিচালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে একরত্তি শ্রী অর্ণব পালের গানের রেশ উদ্বোধনী পর্বকে রাঙিয়ে দিল। আরেক শিশু অদ্রিকা পাল শোনালো রবি ঠাকুরের প্রশ্ন কবিতা। শ্রী শুভ দাস গুপ্তের ‘দিদি’ কবিতায় নিজেকে হারিয়ে ফেলেন শ্রীমতী শ্রেয়া দাসগুপ্ত। প্রিয় কবিতা দর্শকদের কাছে তুলে ধরার যে তৃপ্তি রবি ঠাকুরের ‘সাধারণ মেয়ে’ কবিতা পাঠে যেন সেই ও অনুভবকেই কুড়োলেন শ্রীমতী মনোনীতা চক্রবর্তী। যে কবিতা মনের অন্তরমহলেই বন্দি ছিল অজস্র বসন্ত; শক্তি চট্টোপাধ্যায়ের সে কবিতা যেন নিশিকান্ত সিনহার শব্দস্বরে প্রথমবার ধ্বনিত হলো এই আসরে। প্রায় চার দশক আগে পাঠ করা রবি ঠাকুরের শেষের কবিতা পুনরায় পাঠ করে যেন নস্টালজিক হয়ে উঠলেন শ্রীমতী সম্পা শেঠ। শ্রী শরৎ কুমার মুখোপাধ্যায়ের আঞ্চলিক কবিতার মাঝে যেন শ্রী উত্তম সরকার তার হারানো অস্তিত্বকে খুঁজে পেলেন। সুবোধ সরকারের কবিতার মধ্যে দামিনীর সেই কান্নার কথায় শ্রীমতী মৃদুলা শিকদার যেন মিশে গেল এক দীর্ঘ বিষাদ পর্বে। চৈত্র শেষের কথা শুনিয়ে গেলেন শ্রীমতী শিপ্রা রায়। শ্রীমতী মঞ্জরী পালের ভালো লাগা কবিতা হঠাৎ দেখা -য় নিজের অনুভূতি যেন বর্ষিত হল।রবি ঠাকুরের গান দরদ দিয়ে গাইলে যেমন হয় ঠিক তেমনই ভাবে যেন নিজেকে ধরা দিলেন শিল্পী শ্রীমতী নুপুর বোস। বীরেন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের কবিতা ‘হওয়া না হওয়ার গল্প’ বুঝি অনেক অনুভব ফিরিয়ে দিয়ে গেল শ্রীমতী তপতী শিকদারকে। কৌশল ঘোষের ‘অমল কান্তি’ কবিতা তার ভালোলাগাকে যেন খুঁজে পাওয়া। আলোচনায় মিলে মিশে একাকার হয়ে যাবার কথা শোনান শ্রীমতী মধুমিতা চক্রবর্তী। নিজের প্রিয় শিরোনাম হীন কবিতায় অনেক কিছুই খুঁজে পেলেন শ্রীমতী অর্পিতা দত্ত। যে কবিতায় রবীন্দ্রনাথের নোবেল প্রাপ্তি সেই কবিতার বিশ্লেষণ করলেন শ্রী কৌশিক দাস। শ্রী সুদীপ্ত ভৌমিকের হুইশাল সিংগিং সবার কাছে যেন একটা বাড়তি পাওনা হয়ে উঠলো। শ্রীমতী জয়া ভট্টাচার্যর নিজের লেখা কবিতা ‘বাবাকে লেখা চিঠি’ যেন এক অকথিত অনুভূতির পঙক্তিমালা। যে কবিতা নিজের মননে আর গ্রন্থিতে আটকে যায় বার বার তেমনই কিছু যেন উচ্চারিত হল শ্রী মিঠুন দত্তের কণ্ঠে সুকান্ত ভট্টাচার্যের ‘দেশলাই কাঠি’কবিতায়। মনের মনি কোঠায়, নিভৃতে যে কবিতা বার বার উচ্চারিত হয় তেমনই এক শিরোনামহীন কবিতা শোনালেন শিক্ষক শ্রী উদয় মন্ডল। অনুষ্ঠানটি বেশ কাব্যময়তায় সঞ্চালনা করেন শ্রী মিঠুন দত্ত।

ছবিঃ সুশান্ত নন্দী (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!