এবার আলিপুরদুয়ারের প্রস্তাবিত নতুন বিশ্ববিদ্যালয় বাকলা ব্লকে করার দাবী

অরুনাংশু মৈত্র (টী.এন.আই ফালাকাটা) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই আলিপুরদুয়ার ২৪শে মার্চ ২০১৮: প্রস্তাবিত বিশ্ববিদ্যালয় আলিপুরদুয়ার ২ নম্বর ব্লকের বাকলাতে তৈরির দাবিতে কনভেশনের মাধ্যমে আন্দোলনে নামার সিদ্ধান্ত গৃহীত হল। শনিবার বাকলাতে বিশ্ববিদ্যালয় দাবি আদায় মঞ্চের ডাকে কনভেনশন অনুষ্ঠিত হয়। কুমারগ্রাম ও আলিপুরদুয়ার ২ নম্বর ব্লকের বিভিন্ন এলাকার স্কুল শিক্ষক, অধ্যাপক, প্রাক্তন শিক্ষক, ব্যবসায়ী, ছাত্রছাত্রী সহ বহু সাধারণ মানুষ উপস্থিত ছিলেন। কনভেনশনে উপস্থিত সব বক্তাই বাকলার ওই সরকারি জমিতে বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির পক্ষে মতামত দেন। এদিনের কনভেশনে উপস্থিত ছিলেন শহীদ ক্ষুদিরাম কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ শ্রী স্মৃতিকান্ত বর্মন, মহাকালগুড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান শ্রী মানিক রায়, বিশ্ববিদ্যালয় দাবি মঞ্চের আহ্বায়ক শ্রী সুবল পন্ডিত সহ অন্যান্য বিশিষ্টজনেরা। কনভেনশন থেকে আলিপুরদুয়ারে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের ঘোষণার জন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানান বক্তারা। মঞ্চের দাবি, এই এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের জন্য উপযুক্ত সরকারি জমি রয়েছে। বাকলা গ্রামটি ৩১ সি জাতীয় সড়কের একেবারে পাশেই অবস্থিত। প্রস্তাবিত স্থানের খুব কাছেই রয়েছে কামাখ্যাগুড়ি ও শামুকতলা রেল স্টেশন। এছাড়াও বাকলার আশেপাশেই রয়েছে চা ও কৃষি বলয় এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। যেই জিনিসগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের গবেষণার কাজে লাগবে। উল্লেখ্য, ৯ মার্চ রাজ্যের উচ্চ শিক্ষা দপ্তরের দুই সদস্যদের প্রতিনিধিদল আলিপুরদুয়ার জেলার তপসিখাতা, বাকলা এবং আলিপুরদুয়ার শহরের আলিপুরদুয়ার কলেজ পরিদর্শন করেন। এরপর থেকেই আশায় বুক বাধছেন তিন এলাকার বাসিন্দারাই। বাকলা বিশ্ববিদ্যালয় দাবি মঞ্চের আহ্বায়ক সুবল পন্ডিত জানান, বাকলায় বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের দাবিতে তারা মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হবেন। আজ বাকলার পাশাপাশি তপসিখাতা মউজাতেও প্রস্তাবিত বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করার জন্যে সেখানকার নাগরিকেরা এক গনকনভেনশন আয়োজন করেন। দক্ষিণ দিনাজপুরের মত এবার দেখা যাচ্ছে প্রস্তাবিত বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির স্থান নিয়ে আলিপুরদুয়ার জেলার হাওয়াও যেন ক্রমশ গরম হয়ে চলেছে

ছবিঃ অরুনাংশু মৈত্র (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!