শ্রমিক আন্দোলনে উত্তাল বানারহাটের হলদিবাড়ি চা বাগান

অঙ্কিতা সেন (টী.এন.আই বানারহাট) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই বানারহাট ২১শে মার্চ ২০১৮: আজ শ্রমিক বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে জলপাইগুড়ি জেলার বানারহাট থানার অন্তর্গত হলদিবাড়ি চা বাগানে। আজ সকালে এক অপ্রীতিকর ঘটনায় বিভিন্ন দাবী নিয়ে বাগানের ফ্যাক্টরির সামনে গেটমিটিং করার পর তাদের দাবীপত্র বাগানের ম্যানেজারকে জমা দিতে গেলে চা বাগানের শ্রমিকদের সঙ্গে বাগানের ম্যানেজারের বচসা শুরু হয়।  এর পরেই উত্তেজিত শ্রমিকেরা চা বাগানের ম্যানেজার বিবেক মন্ডল কে হেনস্থা করেন এবং তাকে রাস্তাদিয়ে হাটিয়ে নিয়ে যায়। প্রায় চার কিলোমিটার দূরে অবস্থিত বিন্নাগুড়ি নিয়ে গেলে বানারহাট থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে উত্তেজিত জনতার হাত থেকে ম্যানেজার কে উদ্ধার করে। ম্যানেজার কে তাদের হাতে তুলে দিতে হবে এই দাবীতে ফের শ্রমিকেরা বানারহাট থানা ঘেরাও এর উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। মাঝপথে মোরাঘাট চা বাগানের কাছে বিশাল পুলিশবাহিনী তাদের পথ আটকে দেয়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গ্রামীন) শ্রী নিমা নরবু ভুটিয়া, ডি.এস.পি ক্রাইম মানবেন্দ্র দাস, এস.ডি.পি.ও মালবাজার দেবাশিষ চক্রবর্তী, আইসি বানারহাট বিপুল সিনহার সহ মালবাজার ও নাগরাকাটা থানার পুলিশ বাহিনী।

সমস্যা সমাধানের লক্ষে এদিন সন্ধ্যায় বানারহাট থানায় একটি বৈঠকের আয়োজন করা হয় বৈঠকে ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ আধিকারিকরা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক নাগরাকাটা শ্রী শুকরা মুন্ডা, বিধায়ক ধুপগুড়ি শ্রীমতী মিতালী রায়, বিডিও ধুপগুড়ি, ডি.বি.আই.টি.এ’র চেয়ারম্যান সুমন্ত গুহঠাকুরতা প্রমুখ। সুমন্তবাবু জানান বাগানের ম্যানেজার এর বিরুদ্ধে শ্রমিকেরা যে সমস্ত অভিযোগ এনেছে তা সবটা সঠিক নয়। তিনি বলেন পরিস্থিতি দ্রুত স্বাভাবিক হয়ে উঠুক এবং চা বাগেনের কাজকর্ম আবার আগের অবস্থায় ফিরুক তা তারা চাইছেন। বানারহাট থানার পুলিশ আধিকারিক বিপুল সিনহা জানান পরিস্থিতি বর্তমানে নিয়ন্ত্রনে রয়েছে।

ছবিঃ অঙ্কিতা সেন (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!