রবীন্দ্রসঙ্গীতে আকাশবাণীর ভারত শ্রেষ্ঠ হল শিলিগুড়ি সুভাষপল্লীর সুনন্দা পাল

হীরক. ডি (টী.এন.আই শিলিগুড়ি) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই শিলিগুড়ি ৭ই মার্চ ২০১৮: আবার শিলিগুড়ির এক কন্যা ভারতের সঙ্গীত মানচিত্রে শিলিগুড়ির নাম উজ্জল করলো। ঠিক তাই, সুভাষপল্লীর মেয়ে সুনান্দা পাল এটাই করে দেখিয়েছে। প্রসার ভারতীর অন্তর্গত আকাশবানী সঙ্গীত প্রতিযোগিতা ২০১৭ এর দেশের সর্বশ্রেষ্ঠ নবীন রবীন্দ্রসঙ্গীত  শিল্পী হিসেবে মনোনীত হয়ে পুরষ্কার জিতে নিয়েছে। গত মাসের ২৩ তারিখে লখনউ শহরের রাম মনোহর লোহিয়া রাষ্ট্রীয় বিধি বিশ্ববিদ্যালয়ের আম্ববেদকার সভাঘরে দেশের অন্যন্য বিজয়ী সঙ্গীত শিল্পীদের সাথে এই পুরষ্কার শিলিগুড়ির সুনন্দার হাতে তুলে দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, এই পুরষ্কার আকাশবাণী দ্বারা ১৯৫৫ সাল থেকে আয়োজিত হয়ে আসছে। এই পুরষ্কারের মূল উদ্দেশ্য হল দেশের সঙ্গীত জগতের উঠতি নবীন শিল্পীদের উৎসাহিত করা। দেশের বিভিন্ন আকাশবাণী কেন্দ্রে এই প্রতিযোগিতার অডিশন হয় এবং সেই অডিশন থেকে আঞ্চলিক বিজয়ীদের বেছে নিয়ে সঙ্গীতের বিভিন্ন বিভাগে এই পুরষ্কার দেওয়া হয়। আকাশবাণী শিলিগুড়ি কেন্দ্রের উত্তরবঙ্গ অডিশন থেকে উত্তীর্ণ হয়ে রাষ্ট্রীয় স্তরের এই পুরষ্কার পেয়ে শিলিগুড়ির নাম উজ্জল করল শিলিগুড়ির মেয়ে সুনন্দা। পিতা সুশান্ত পাল ও তৃপ্তি পালের দ্বিতীয় সন্তান সুনন্দা গত বছর শান্তিনিকেতনের বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সঙ্গীতে স্নাতকত্তর ডিগ্রী পেয়েছে। বর্তমানে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডঃ স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ের (অভিনেত্রী নয়) কাছে রবীন্দ্রসঙ্গীতের তালিম নিচ্ছে সুনন্দা। সুনন্দার তার বাবা শ্রী সুশান্ত পাল হল তার প্রথম প্রেরণা। তিনি নিজেই সুনন্দার সঙ্গীত জীবনের প্রথম শিক্ষক। এই পুরষ্কার যারা পায় তারা আকাশবাণীর সঙ্গীত শিল্পীদের গ্রেড বি-র স্তরে নথিভুক্ত করা হয়। সুনন্দার ক্ষেত্রেও তাই হয়েছে। ভবিষ্যতে সুনন্দা প্লেব্যাক সিংগার হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করে। বলে রাখা ভাল সুনন্দার সাথে সাথে উত্তরবঙ্গ থেকে আরো এক শিল্পী আলিপুরদুয়ার নিলাঞ্জনা কাহালি নজরুলগীতি সেকশনে এই পুরষ্কার পায়।

ছবিঃ সংবাদ চিত্র

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!