পিটিটিআই-এ পুনরায় ভর্তির আশ্বাস পেয়েই আমরণ অনশন তুললেন ছাত্রী

স্বপন রায় বীর (টী.এন.আই মেখলীগঞ্জ) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই মেখলীগঞ্জ ৭ই ফেব্রুয়ারি ২০১৮: আমরণ অনশন তুলে নিলেন মালবিকা, ঠিক কি আশার আর প্রতিশ্রতি নিয়ে তুলে নিলেন অনশন, তা নিয়ে প্রশ্ন সব মহলে, আদৌ কি চাপে পড়ে অনশন ছাড়তে বাধ্য হন শ্রীমতী মালবিকা রায়, না সময় না থাকলেও ভর্তি করার আশ্বাস পেয়েই তুলে নেন অনশন – তা  নিয়ে প্রশ্ন গোটা ব্লক জুড়ে। উল্লেখ্য যে, মেখলিগঞ্জ পিটিটিআই কলেজে ভর্তির নাম করে যে প্রতারণার অভিযোগ মালবিকা নামে এক ছাত্রী করেন এবং তিন দিন ধরে অনশনে বসে ছিলেন নেতাজী পিটিটিআই কলেজের ছাত্রী শ্রীমতী মালবিকা রায়। আজ তা কলেজ কর্তৃপক্ষের আশ্বাসে তুলে নেওয়া হয় রাত ৮ ঘটিকায়।

অনেকে টানাপোড়ন ও প্রশাসনিক চাপে পড়ে অবশেষে ছাত্রীর ন্যায় বিচারের দাবিকে মেনে নেওয়ার কথা স্বীকার করে মেখলীগঞ্জ পিটিটিআই কর্তৃপক্ষ। দীর্ঘ সময় লড়াই করে ও বিভিন্ন মিডিয়ার খবরের জেড়ে নিজের দাবিকে পুরন করার আশ্বাস নিয়েই অনশন ভাঙ্গেন ছাত্রী মালবিকা। কলেজ কর্তৃপক্ষের আশ্বাস, এবছর ২০১৭-১৯ এর নাম ভর্তি করিয়ে দেবেন। যদি তা সম্ভব না হয় তাহলে আগামী ২০১৮-২০২০ শিক্ষাবর্ষে তাকে কোন বিনামূল্যে ভর্তি নেওয়া হবে বলে কলেজ কর্তৃপক্ষ জানায়। অন্যদিকে, পশ্চিমবঙ্গে ডি.এড কলেজ এর নিয়ন্ত্রণে থাকা বোর্ড এঁর নির্দেশিকাকেও তোয়াক্কা না করেই অসময়ে ভর্তির কথা জানিয়ে মালবিকাকে বোঝানো হয়, এমন যুক্তিকে মেনে নেন মালবিকার পরিবার৷ অভিযুক্ত ওই প্রতিষ্ঠানের বিষয়ে প্রশাসন থেকে তেমন কোন সারা পাওয়া না গেলেও মেখলীগঞ্জ পুলিশ সূত্র জানা যায় – মালবিকার অভিযোগ পাওয়া হয়, তিন দিনের অনশনের মাঝে আজ রাতেই কলেজ কর্তৃপক্ষ এঁর সাথে ঠিক কি প্রতিশ্রতি হয় তা পুলিশ জানে না, তবে অনশন প্রত্যাহার করেন মালবিকা এটা মেখলিগঞ্জ থানার পক্ষ থেকেও জানান হয়৷

ছবিঃ স্বপন রায় বীর (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!