ইসলামপুর শ্রী রামকৃষ্ণ আশ্রমে আয়োজিত হল শিশুদের আলোচনা সভা

সুশান্ত নন্দী (টী.এন.আই সংস্কৃতি) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই ইসলামপুর ১৪ই জানুয়ারি ২০১৮: শহরে বুঝি এই প্রথম কোনও আলোচনা চক্র যেখানে আলোচক এক দঙ্গল শিশু ও কিশোর। আর শ্রোতা যুবক ও বর্ষীয়ান মানুষরা। শুধু ভিন্ন কিংবা ব্যতিক্রমী নয়, বলতে হবে ভাবনার বদল। ‘আধুনিক ও স্বপ্নের ভারত গঠনে স্বামী বিবেকানন্দর ভূমিকা’ শীর্ষক এই আলোচনা চক্রের আয়োজক ইসলামপুর শ্রী রামকৃষ্ণ আশ্রম। বাংলা, হিন্দি ও ইংরেজি এই তিনটি বিষয়ে আলোকপাত করে আঠারো জন পড়ুয়া। এই বিষয়ে ছিল প্রতিযোগিতা। সেখানে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় হন যথাক্রমে সৌলিপ বিশ্বাস, জ্যোতিষ্মান শর্মা এবং অনুষ্কা পাল। বিশেষ পুরুস্কার তুলে দেওয়া হয় মোহনা সেনশর্মা, প্রজ্ঞান সাহা এবং ঋতব্রত নন্দীকে। রবিবার বিবেকানন্দ সম্পর্কে ওই শিশু ও কিশোর কিশোরীদের ভাবনা যেভাবে প্রতিফলিত হয়েছে ওদের বক্তব্যে তা নিয়ে রীতিমতো হতবাক বর্ষীয়ান মানুষরা। এই খুদেরাই আগামীর যুবক যুবতী।

এদের মাধ্যমেই বিবেকানন্দের ভাবনা প্রতিফলিত হবে বলে জানান অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিধায়ক তথা ইসলামপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান কানাইলাল আগরওয়াল। আশ্রমের সভাপতি ডাঃ আশীষ দাশগুপ্ত জানান, শিশুরাও যে কোনও আলোচনা চক্রের আলোচক হতে পারে তা ভাবতেই ভালো লাগছে। আলোচনা চক্রের দুই বিচারক ছিলেন মনোনীতা চক্রবর্তী ও প্রশান্ত প্রামানিক। অন্যদিকে গতকাল অর্থাৎ ১২ই জানুয়ারি বিবেকানন্দর জন্মদিবসকে সামনে রেখে এদিন আশ্রম চত্বরেই বসেছিল শিশুদের নিয়ে রং ভরো প্রতিযোগিতার আসর। দুটি বিভাগে প্রায় পঞ্চাশ জন পড়ুয়া অংশ নেয়। সফল স্থানাধিকারীদের পুরুস্কার তুলে দেওয়া হয়। এছাড়াও এদিন একটি  স্বেচ্ছা রক্তদান শিবিরেরও আয়োজন করেন আশ্রম কতৃপক্ষ। সেখানে মোট পঁয়ত্রিশ জন স্বেচ্ছায় রক্তদান করেন বলে জানান আশ্রমের সম্পাদক সুব্রত চক্রবর্তী। সংগৃহিত রক্ত ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংকে জমা করা হয়। সব মিলিয়ে এদিন শ্রী রামকৃষ্ণ আশ্রম যেন উৎসব মুখর হয়ে উঠেছিল।

ছবিঃ সুশান্ত নন্দী (টী.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!