বর্ষা শুরুর আগেই মুজনাই নদীর ওপর থাকা অস্থায়ী বাঁশের সাকো ভেসে গেল ফালাকাটায়

অরুনাংশু মৈত্র (টি.এন.আই ফালাকাটা) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টি.এন.আই, ফালাকাটা, ৯ই জুন, ২০২১: কথায় আছে, নদীর পারে বাস, চিন্তা বারোমাস! আলিপুরদুয়ার জেলার ফালাকাটা ব্লকের দেওগাঁও ও জটেশ্বর দুই নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের বিস্তীর্ণ এলাকাকে আড়াআড়ি ভাগ করেছে মুজনাই নদী। তাই এখানেও সেই একই চিন্তা বারোমাস। বর্ষা এলেই জলের তোড়ে ভেসে যায় নদী পারাপারের অস্থায়ী বাঁশের সাঁকো। এবছর বর্ষা শুরু আগেই বৃষ্টির জলে ভেসে গেলো ফালাকাটা ব্লকের গঙ্গামণ্ডল ঘাটের মুজনাই নদীর ওপর থাকা অস্থায়ী বাঁশের সাকো। বর্ষা শুরু না হতেই বাঁশের সাঁকো ভেসে যাওয়ায় চরম সমস্যায় পড়েছেন কয়েক হাজার মানুষ। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আলিপুরদুয়ারের ফালাকাটা ব্লকের দেওগাঁও গ্রাম পঞ্চায়েত ও জটেশ্বর ২ নং গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার মাঝ বরাবর বয়ে গিয়েছে মুজনাই নদী। স্থানীয় বাসিন্দাদের পারাপারের একমাত্র ভরসা এই বাঁশের সাঁকো। সেই সাঁকো গত মঙ্গলবার ভোর রাতের বৃষ্টির জলে ভেসে যাওয়ায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নৌকায় পারাপার করতে হয় এলাকার প্রায় কয়েক হাজার মানুষকে।এলাকা বাসির অভিযোগ, ‘বহুবার পাঁকা সেতুর দাবি বিভিন্ন মহলে জানানো হলেও, আজ অবধি সেই দাবি পূরণ হয়নি।’

ছবি: অরুনাংশু মৈত্র (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!