কেরলে বহুতলের ছাদ ভেঙে মারা গেল উত্তরবঙ্গের দুই নির্মাণ শ্রমিক

টি.এন.আই নিউজ সার্ভিস

বাংলাডেস্ক, টি.এন.আই, মাথাভাঙ্গা, ১২ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯: ভিন রাজ্যে কাজের খোঁজে ছুটে যাচ্ছেন হাজার হাজার উত্তরবঙ্গের নির্মান শ্রমিক৷ এই চিত্র বহুদিন ধরেই দেখা যাচ্ছে। মূলত বড় অট্টালিকা বা বহুতল বাড়ি নির্মাণেই সামন্য অর্থের জন্য ছুটে যান উত্তরবঙ্গের আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়া যুবকরা৷ তবে কাজের খোঁজে শেষে নিথর দেহ বাড়িতে আসবে ভাবতে পারেনা শ্রমিকদের পরিবার৷ এরকমই ঘটনা ঘটল কুচবিহারের এক যুবকের ক্ষেত্রে। জাকির হোসেন, মাত্র ১৭ বছর বয়সে পাড়ি দেন কেরলে৷ নির্মাণ কাজে লেগে পরে তার পরিবারের দুই মুঠো অন্নের জোগাড়ের জন্য। হঠাৎ সেখানে বহুতলের ছাদ ভেঙ্গে যায়, চাঁপা পড়েন দেওয়ালে৷ হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত্যূ হয় ওই যুবকের৷ জাকিরের বাড়ি কুচবিহারের মাথাভাঙ্গার কেদারহাট গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার জরেশিমূলি গ্রামে৷ একই সঙ্গে, জলপাইগুড়ি জেলার ধুপগুড়ি ব্লকের গাদন এলাকার এক যুবক দেওয়ালে চাঁপা পরে মারা যান৷ জাকিরের আত্মীয় এবং প্রতিবেশি রহমত আলি জানিয়েছেন শনিবার বিকেলে বহুতলের দেওয়াল চাঁপা পরে মারা যায় জাকির৷ অন্যদিকে, মৃত দুই যুবকের দেহ আজ আসতে পারে বলে জানা গেছে৷ মৃত জাকিরের বাবা মনসুর আলী জানিয়েছেন পরিবারের কিছু টাকা পয়সার উপার্জন জন্য ছেলে বাইরে গিয়েছিল কিন্তু ছেলের মৃত দেহ দেখতে হবে এমন কোন দিন ভাবেন নি৷ জাকিরের অকাল মৃত্যূতে শোকের ছায়া নেমে আসে গোটা গ্রামে৷

সংবাদচিত্র

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!