কুচবিহার জেলার সামাজিক সুরক্ষা যোজনার বরাদ্দ চেক বিলি হল মেখলীগঞ্জে

টি.এন.আই নিউজ সার্ভিস

বাংলাডেস্ক, টি.এন.আই, মেখলীগঞ্জ, ১লা ফেব্রুয়ারি, ২০১৯: চলতি বছরে কুচবিহারে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা কাজে বেশ ধীরগতিতে চলছিল কাজ৷ সংগঠিত এবং অসংগঠিত শ্রমিকরা নিজেদের নাম নথিভুক্ত করলেও সহজে মেলেনি পরিষেবা এমন অভিযোগ দেখা গেছে কুচবিহারের পাঁচটি মহকুমা এলাকার নথিভুক্ত শ্রমিকদের মধ্যে৷ গত ২৯ অক্টোবর কুচবিহারের প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশমত জেলা জুড়ে সামাজিক সুরক্ষা যোজনার কাজ এগিয়ে নিয়ে যেতে কার্যত তোরজোড় শুরু করে দেয় জেলা শ্রমদপ্তর৷ জেলার বিভিন্ন মহকুমা এলাকায় শ্রমিক মেলার আয়োজন করে বিলি করা হচ্ছে এই প্রকল্পের সুবিধাগুলো৷ জেলার মধ্যে প্রথমে তুফানগঞ্জ এলাকায় অনুষ্ঠিত হয় শ্রমিকমেলা৷ সেখানে বিলি করা হয় চেক৷ এদিন কুচবিহারের মেখলীগঞ্জে অনুষ্ঠিত হয় শ্রমিকমেলা৷ মেখলীগঞ্জ মহকুমার মধ্যে ৭০ হাজার নথিভুক্ত শ্রমিকের মধ্যে এদিন ৮১৭ জনকে চেক তুলে দেওয়া হয় শ্রমদপ্তরের পক্ষ৷ এদিন শ্রমিকমেলায় উপস্থিত ছিলেন মহকুমা শ্রম দপ্তরের আধিকারিক সন্দীপ কর্মকার, জেলা শ্রমদপ্তরের ডেপুটি লেবার কমিশনার রমেশ কুমার সিনহা৷ উপস্থিত ছিলেন মেখলীগঞ্জ মহকুমা শাসক দিব্যনারায়ণ চট্টোপাধ্যায়৷ এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন চ্যাংরাবান্দা উন্নয়ন পর্ষদ এর সভাপতি পরেশ চন্দ্র অধিকারী৷ কুচবিহার জেলার ডেপুটি লেবার কমিশনার রমেশ কুমার সিনহা জানিয়েছেন শ্রমদপ্তরের এই সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্প কাজ প্রথম অবস্থায় অফলাইনে থাকলেও এখন অনলাইনে ব্যবস্থা করায় দ্রূত গতিতে কাজ হচ্ছে৷ কুচবিহার জেলায় তিন লক্ষের বেশী শ্রমিক এই সুরক্ষা যোজনার আওতায় এসেছে৷ আমরা শ্রমিক মেলা ছাড়াও শ্রমিকদের বাড়িবাড়ি গিয়ে প্রাপ্য সুবিধা গুলো দিয়ে আসছি৷ এদিন মেখলীগঞ্জে সামাজিক সুরক্ষা যোজনায় নথিভুক্ত ৭০ হাজার শ্রমিকের মধ্যে নির্মাণ শ্রমিক, পরিবহন শ্রমিক এবং অন্যান্য শ্রমিকদের মধ্যে ৮১৭ জনের হাতে চেক তুলে দেন৷ এইদিনের মেলায় প্রায় ৬৫ লাখ টাকা শ্রমিকদের দেওয়া হয়৷ সূত্রের মারফৎ জানা গেছে কুচবিহারে প্রশাসনিক বৈঠকের পরই মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে জেলা জুড়ে শ্রমদপ্তরের পক্ষ থেকে গতি আনা হয়েছে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা প্রকল্পে৷

সংবাদচিত্র ও ভিডিও

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!