ইসলামপুর ব্লকের সন্ত্রাস কবলিত একমাত্র গ্রাম পঞ্চায়েত কমলাগাঁও সুজালী উন্নয়নে প্রথম

দীপঙ্কর দে (টি.এন.আই ইসলামপুর) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টি.এন.আই, ইসলামপুর, ২৭শে জানুয়ারি, ২০১৯: উন্নয়নের নিরিখে প্রথম বাম আমল থেকে পিছিয়ে পড়া সন্ত্রাস কবলিত ইসলামপুর ব্লকের একমাত্র গ্রাম পঞ্চায়েত কমলাগাঁও সুজালী। জানা গিয়েছে, উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ স্টেডিয়ামে জেলা প্রশাসন আয়োজিত ৭০ তম প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠান মঞ্চে উন্নয়নের নিরিখে প্রথম পুরস্কারে সম্মানিত হলো ইসলামপুর ব্লকের একমাত্র কমলাগাঁও সুজালী গ্রাম পঞ্চায়েত। উত্তর দিনাজপুরের জেলাশাসক অরবিন্দ কুমার মীনা কমলাগাঁও সুজালী গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান নুরী বেগমের হাতে স্মারক ও মানপত্র তুলে দেন। পুরস্কারে সম্মানিত হয়ে আনন্দে কেঁদে ফেলেন কমলাগাঁও সুজালী গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান নুরী বেগম। প্রধান নুরী বেগম বলেন, বাম আমল থেকেই অনেক পিছিয়ে ছিল আমাদের পঞ্চায়েত তার উপর খুন জখম রাহাজানি সন্ত্রাসের কবলে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের প্রত্যন্ত এলাকার এই পঞ্চায়েতে গত পাঁচ মাসে তৃণমূল ক্ষমতায় আসতেই অঞ্চল সভাপতি আব্দুল হক ও বিধায়ক হামিদুল রহমানের নেতৃত্বে উন্নয়নের জোয়ার বইছে। পুরো পঞ্চায়েত এলাকায় খুশির বাতাবরণ বইতে শুরু করেছে। এমন সময় এই সম্মান আগামী দিনে পঞ্চায়েতকে উন্নয়নের লক্ষ্যে এগিয়ে নিয়ে যেতে আমাদের উৎসাহিত করবে। কমলাগাঁও সুজালী গ্রাম পঞ্চায়েতের অঞ্চল সভাপতি আব্দুল হক বলেন, গত বছর পর্যন্তও কমলাগাঁও সুজালী গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রায় প্রতিটি বাড়িতে একটি করে ওয়ারেন্ট ছিল। বাম আমলে এমন কোনও পরিবার নেই যাদের নামে মামলা ছিল না। গত ২০১৮ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর কমলাগাঁও সুজালী গ্রাম পঞ্চায়েত বিরোধী শুন্য করে তৃণমূল ক্ষমতায় আসে। ক্ষমতায় আসার পর থেকেই সমস্ত রকমের সরকারী সুযোগ সুবিধা পঞ্চায়েতের মানুষের বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে। গত প্রায় পাঁচ মাসে এপর্যন্ত প্রায় ২০ কোটি টাকার কাজ কিছু চলছে ও অধিকাংশ শেষ হয়ে গিয়েছে। এই পুরস্কার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নের জোয়ারের প্রমান।

ছবি: দীপঙ্কর দে (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!