ধুপগুড়ীতে বিজেপি কাউন্সিলারকে মারধর এবং হেনস্থার অভিযোগ তৃনমূলের বিরুদ্ধে

সুপ্রিয় বসাক (টী.এন.আই ধুপগুড়ি) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই ধুপগুড়ী ৪ঠা ফেব্রুয়ারি ২০১৮: বিজেপি কাউন্সিলার তথা পুরসভার বিরোধী দলনেতাকে মারধর এবং হেনস্থার অভিযোগ তৃণমূলের প্রাক্তণ ভাইস চেয়ারম্যান তথা পুরসভার ১০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলারের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে ধুপগুড়ি পুরসভা কার্য্যালয়ে শুক্রবার সন্ধ্যা নাগাদ। তবে বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে রবিবার সকালে। জানা গিয়েছে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজে আগের পুরবোর্ড যা খরচ করেছে তার হিসেব চাওয়া এবং হাউস ফর অল নিয়ে সঠিক উপভোক্তা ঘর না পাওয়ার কারন জিঞ্জাসাকে কেন্দ্র করে এই ধুন্ধুমার ঘটনা ঘটে।বর্তমান পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান রাজেশ সিং-র সামনেই কথা কাটাকাটি ও ধাক্কা ধাক্কিতে জড়িয়ে পড়েন ধূপগুড়ি পুরসভার প্রাক্তণ ভাইস চেয়ারম্যান অরুপ দে ও বিজেপির ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তথা পুরসভার বিরোধী দলনেতা কৃষ্ণ দেব রায়কে ধাক্কাধাক্কি করার পাশাপাশি মারধর করা হয় বলে অভিযোগ এবং অরুপ দে বিজেপি কাউন্সিলর কৃষ্ণদেব রায়কে ভাইস চেয়ারম্যানের ঘর থেকে বেড়িয়ে যেতে বলেন। পরিস্থিতি এমনই পর্যায়ে পৌঁছায় যে শেষ পর্যন্ত ভাইস চেয়ারম্যান রাজেশ সিং উভয়পক্ষকে সরিয়ে শান্ত করেন। কৃষ্ণবাবু অভিযোগ “আমি আগের বোর্ডের বিভিন্ন উন্নয়ন খাতে খরচ হওয়া টাকার হিসেব এবং হাউস ফর অলের সঠিক উপভোক্তার নাম তালিকায় না থাকার কারন জানতে ভাইস চেয়ারম্যানের কাছে গিয়েছিলাম। তখনই ওই ঘরে ঢুকে আমাকে গালাগাল শুরু করেন অরুপ দে। আমাকে বলেন, বিরোধী দল টল আমরা মানি না। তোরা এখান থেকে বেরিয়ে যা।” কৃষ্ণবাবুর অভিযোগ, অরুপ দে – র এই ধরণের আচরণ আগেও তারা দেখেছেন। তবে এদিনেরটা বাড়াবাড়ি পর্যায়ের ছিল। ঘটনায় তবে অরুপ দের পাল্টা অভিযোগ, কথায় কথায় পুরবোর্ডের বিরোধী দলনেতা বিজেপির ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কৃষ্ণ দেব রায় চেয়ারম্যান বা ভাইসচেয়ারম্যানের ঘরে ঢুকে টেবিল চাপড়ানো শুরু করে দেন। এটাই তার অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। যদিও এটি পুরবোর্ডের নিয়ম নীতির পরিপন্থী। হিসেব যে কেউ চাইতে পারে। কিন্তু সব কিছুর একটি নির্দীষ্ট পদ্ধতি রয়েছে। পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান রাজেশ সিং বলেন, বিজেপি কাউন্সিলার টেবিল চাপড়ে হিসেব চাইছিল, সেই সময় ১০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলার ঘরেই ছিলেন দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। তবে দুইজনকেই শান্ত করা হয়। তবে মারধরের বিষয়টি পুরোপুরি অস্বীকার করেন রাজেশ সিং।

ছবিঃ সুপ্রিয় বসাক (টী.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!