প্রাথমিকে উর্দু শিক্ষকের দাবীতে ইসলামপুরে ধর্না পড়ল দ্বিতীয় দিনে

দীপঙ্কর দে (টি.এন.আই ইসলামপুর) । টি.এন.আই সম্পাদনা বালুরঘাট

বাংলাডেস্ক, টি.এন.আই, ইসলামপুর, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯: উর্দূভাষায় প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে মহকুমা শাসকের দপ্তরের সামনে অনিদৃষ্টকালের ধর্না আজ দ্বিতীয় দিনে পড়ল। ধর্না তোলার জন্য আজ মহকুমা শাসক আন্দোলনকারি ছাত্রদের সংগে বৈঠক করেন। বৈঠকে কোন সমাধান সূত্র না মেলায় ছাত্ররা আন্দোলন চালিয়ে যাবার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।গতকাল থেকে ইসলামপুর মহকুমা শাসক দপ্তরের সামনে অনিদৃষ্টকালের জন্য অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেছে টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ন উর্দূভাষাভাষী ছাত্র ছাত্রীরা। প্রশাসনের ১৪৪ ধারা জারি থাকা সত্বেও মহকুমা শাসক দপ্তরের সামনে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করায় প্রশাসন মেনে নিতে পারেনি। প্রশাসনের আধিকারিকরা পুলিশকে সংগে নিয়ে তাদের উঠে যেতে অনুরোধ করেন। আন্দোলনকারি ছাত্র ছাত্রীরা অরশাসনের এই আবেদনে সাড়া দেয়নি আন্দোলনকারিরা। ২০১৪ সালে উর্দূভাষা টেট পরীক্ষা  উত্তর দিনাজপুর জেলায় ২১৫ জন ছাত্র ছাত্রী উত্তীর্ন হয়েছিল। তাদের মধ্যে ৭২ জনকে নিয়োগপত্র দেওয়া হলেও বাকিদের নিয়োগপত্র দেওয়া হয়নি। প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে টেট পরীক্ষায় পাশ করেও তারা প্রাথমিক শিক্ষকে নিয়োগপত্র না পাওয়া উচ্চ আদালতে দ্বারস্থ হয়েছিল। ২০১৭ সালে তাদের প্রাথমিক শিক্ষকে নিয়োগপত্র দেবার কথা থাকলেও আজ পর্যন্ত টেট পাশ করা ছাত্র ছাত্রীরা নিয়োগপত্র হাতে না পাওয়ায় আজ ইসলামপুর মহকুমা শাসকের দপ্তরের সামনে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেছে। আন্দোলনরত ছাত্ররা জানিয়েছে, ১৪৪ ধারা লঙ্ঘন করার অভিযোগে আন্দোলনরত ছাত্রদের গ্রেপ্তার করল ইসলামপুর থানার পুলিশ। পুলিশের এই ভূমিকায় ক্ষুব্ধ ঊর্দূ ছাত্র ছাত্রীরা। ইসলামপুরের মহকুমা শাসক মনীশ মিশ্র বলেন, ছাত্রদের দাবী যথাযথ জায়গায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। ১৪৪ ধারা থাকার কারনে তাঁদের আন্দোলন থেকে সরে যেতে অনুরোধ করা হয়েছিল। ছাত্ররা ১৪৪ ধারা লঙ্ঘন করায় তাঁদের গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ছবি: দীপঙ্কর দে (টি.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!