ঘন কুয়াশার দাপটে জনজীবন স্বাভাবিক রাখতে পুরসভার উদ্যোগ

সুপ্রিয় বসাক (টী.এন.আই ধুপগুড়ি) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই ধুপগুড়ি ৬ই জানুয়ারি ২০১৮: ঘন কুয়াশার দাপটে জনজীবন স্বাভাবিক রাখতে পুরসভার উদ্যোগ। কুয়াশায় দৃশ্যমানতা কমে যাওয়ায় শহরের রাস্তায় সাধারন মানুষের চলাচলের সুবিধার্থে ফুটপাত দখল মুক্ত করা হয়। ছোটো দোকানদার এবং হকার দের ফুটপাত ছেড়ে দিতে অনুরোধ করা হয়। ধুপগুড়ি পুরসভা এলাকায় অধিকাংশ রাজ্য ও জাতীয় সড়কেই ফুটপাত বন্ধ ব্যবসায়ীদের দাপটে।শনিবার সকালে ধুপগুড়ি পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান রাজেশ সিং ও পুরসভার কর্মীরা এবং ট্রাফিক ওসি অসীম মজুমদার এই অভিযান করেন। এদিন সকাল থেকে কুয়াশার জেরে স্বাভাবিক জনজীবন ব্যাহত হয়। তবে বেলার দিকে ধীরে ধীরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। এদিন ভোর বেলা থেকে কুয়াশার জেরে ৫০-১০০ মিটার পর্যন্ত রাস্তাও অস্পষ্ট হয়ে ওঠে। সকালের দিকে রাস্তার দুইধারে বহু মানুষকেই শীত প্রশমিত করতে আগুন জ্বালিয়ে বসে থাকতে দেখা যায়।

আবহাওয়া দফতর সুত্রে জানা গিয়েছে এদিন দিনের সর্বনিম্ম তাপমাত্রা ছিল ৯.৮ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং গত ৫ জানুয়ারীর রেকর্ড অনুযায়ী সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৪.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়া দফতরের পুর্বাভাস অনুযায়ী শনিবার দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকতে পারে ৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে প্রায় দুই ডিগ্রী কম।তাপমাত্রার পারদ এতটা নেমে যাওয়াতে জনজীবনে ব্যাপক প্রভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছে। শীতের থেকে নিজেকে সরিয়ে রাখতে গিয়ে এদিন জেলার বিভিন্ন জনপদই জন শুন্যতার পথে।ধুপগুড়ি পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান রাজেশ কুমার সিং বলেন, পুর এলাকা সহ ধুপগুড়ি শহরের মানুষের জনজীবন স্বাভাবিক রাখতে ফুটপাত গুলি খালি করে দেওয়ার ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়। যাতে রাস্তায় দৃশ্যমানতা কম থাকায় মানুষের চলাচলে সুবিধা হয়। সকালে শহরের রাস্তার আলোর সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে।প্রয়োজনে আরো ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ছবিঃ সুপ্রিয় বসাক (টী.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!