আলিপুরদুয়ার জেলায় দিনভর বিজেপির বিভিন্ন কর্মসূচি চলল তৃনমূল সরকারকে কটাক্ষ

অরুনাংশু মৈত্র (টী.এন.আই ফালাকাটা) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই, কালচিনি ২৯শে ডিসেম্বর ২০১৭: আলিপুরদুয়ারে কর্মী সভা করার পর শ্রী মুকুল রায়, শ্রীমতী রূপা গাঙ্গুলি, শ্রী শমীক ভট্টাচার্য কালচিনিতে আসেন কালচিনিতে প্রথমে আটিয়াবাড়ি চা বাগানে কর্মীদের সাথে কিছুক্ষণ বৈঠক করেন সেখানে বীরশা মুণ্ডা মূর্তিতে মাল‍্যদান করেন। সেখান থেকে কালচিনি মোদিলাইন এলাকায় একটি নুতন দলীয় কার্যালয় উদ্ভোধন করেন। তারপর হ‍্যামিলণ্টণগঞ্জ কালিমন্দিরে আয়োজিত কর্মী সভায় যোগদান করে। এই সভায় বিভিন্ন দল থেকে প্রায় ৪০ জন বিজেপি তে যোগদান করে। আজকের কর্মী সভায় শ্রীমতী রূপা গাঙ্গুলি, শ্রী মুকুল রায়, শ্রী শমীক ভট্টাচার্য, তিন জনেই বন্ধ চা বাগান নিয়ে তৃণমূল সরকার কে দায়ী করেন। রূপা গাঙ্গুলি জানান যে আলিপুরদুয়ারে বিভিন্ন এলাকায় জনসভা করার কথা ছিল কিন্ত পুলিশ প্রশাসন অনুমতি দিলনা। তিনি আরও জানান এখানকার চা বাগানের শ্রমিকদের অবস্থা করুণীয়, দুবেলা দুমুঠো খাবার জুটছে না কেন্দ্র থেকে শ্রমিকদের জন‍্য বিভিন্ন প্রকল্প আসছে কিন্ত এই সমস্ত গরীবদের কাছে পৌছাচ্ছে না। শ্রী মুকুল রায় জানান যে কেন্দ্র থেকে আসা বিভিন্ন প্রকল্প রাজ‍্য সরকার নিজের প্রকল্প বলে চলাচ্ছে তিনি আরো বলেন যে কেন্দ্র সরকার এক টাকা কিলো চাল দিচ্ছে আর মূখ‍্যমন্ত্রী সেই একটাকা কিলো চাল দুই টাকায় বিক্রি করছে চা বাগানে আর বলছে দুই টাকা কিলো চাল দিচ্ছি কিন্ত আসলে এক টাকা করে আয় করছে। আজকে তিনি আরো বলেন। বিভিন্ন চিটফান্ড কোম্পানি টাকা কোথায় গেল তার পুরো সি.বি.আই তদন্ত হওয়া উচিত।

ছবিঃ অরুনাংশু মৈত্র (টী.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!