আজ থেকে আলিপুরদুয়ারে শুরু হল ১৮তম বিশ্ব ডুয়ার্স উৎসব

অরুনাংশু মৈত্র (টী.এন.আই ফালাকাটা) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই, আলিপুরদুয়ার ২৯শে ডিসেম্বর ২০১৭: আলিপুরদুয়ার প্যারেড গ্রাউন্ডে ১৪ তম বিশ্ব ডুয়ার্স উৎসব শুরু হল। শুক্রবার বিকেলে প্রদীপ জ্বালিয়ে উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন শ্রী মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। এর আগে আলিপুরদুয়ার শহরের বি.এম ক্লাব ময়দান থেকে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার বের করা হয়। প্যারেড গ্রাউন্ডে গিয়ে শেষ হয় শোভাযাত্রাটি। উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী ছাড়াও এদিনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের আদিবাসী উন্নয়ন মন্ত্রী শ্রী জেমস কুজুর, শিলিগুড়ি-জলপাইগুড়ি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান তথা আলিপুরদুয়ারের বিধায়ক শ্রী সৌরভ চক্রবর্তী, ফালাকাটার বিধায়ক শ্রী অনিল অধিকারি, রাজ্য সরকারের ভূমি ও ভূমি সংস্কার এবং উদ্বাস্তু ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিভাগের রাজ্য উপদেষ্টামন্ডলীর চেয়ারম্যান শ্রী মৃদুল গোস্বামী, রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শ্রী শংকর চক্রবর্তী, আলিপুরদুয়ারের প্রাক্তন বিধায়ক দেবপ্রসাদ রায়, আলিপুরদুয়ারের জেলাশাসক শ্রী দেবীপ্রসাদ করণম সহ সরকারি আধিকারিক এবং জন প্রতিনিধিরা। জানা গিয়েছে, ডুয়ার্সকে জানতে ও জানাতে এবং ডুয়ার্সের সংস্কৃতিকে তুলে ধরতে এই উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। উদ্বোধনের পর মঞ্চে স্বাগত ভাষণ দেন আলিপুরদুয়ার ডুয়ার্স উৎসব সমিতির সভাপতি তথা জেলাশাসক শ্রী দেবীপ্রসাদ করণম। আলিপুরদুয়ার ডুয়ার্স উৎসব সমিতির সভাপতি তথা জেলাশাসক শ্রী দেবীপ্রসাদ করণম জানান, ১৩ বছর আগে আলিপুরদুয়ার মহকুমার তৎকালীন মহকুমাশাসকের সৌমিত্র মোহনের উদ্যোগে এই উৎসব সূচনা হয়েছিল। ধীরে ধীরে এই উৎসব বড় আকার ধারণ করেছে। আলিপুরদুয়ার ডুয়ার্স উৎসব সমিতির সাধারণ সম্পাদক তথা বিধায়ক শ্রী সৌরভ চক্রবর্তী জানান, এবারের বিশ্ব ডুয়ার্স উৎসবের আকার অনেক বড়। উৎসবে সক্রিয় সহযোগিতা করছে রাজ্য সরকারের যুব কল্যাণ দপ্তর। দশ দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানে প্রতিদিনই বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে। বিশেষ আকর্ষণ হিসেবে থাকছে ভুটানের মুখোশ নৃত্য। এছাড়াও পুরুলিয়ার ছৌ নৃত্যও থাকছে। উৎসব প্রাঙ্গণে মোট ৭০০ টি স্টল থাকছে। এর মধ্যে প্রায় ২০০ সরকারি স্টল। জানা গিয়েছে, মুম্বই ও কলকাতার সঙ্গীত শিল্পীরা তাদের সঙ্গীত পরিবেশন করবেন। ৭ই জানুয়ারি উপস্থিত থাকবেন গায়ক কুমার শানু। উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী শ্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ বলেন, উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তর উত্তরবঙ্গের উন্নয়নে সর্বদাই সাথে আছে। এই উত্সব একটি জাতীয় উত্সবে পরিণত হোক এই প্রয়াস চলছে।

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!