কুমারগঞ্জ কলেজের ভবনের উদ্বোধন হল, নতুন শিক্ষা বছর থেকে চালু হতে পারে পঠনপাঠন

দীপঙ্কর মিত্র (টী.এন.আই বালুরঘাট) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই, কুমারগঞ্জ ২৪শে ডিসেম্বর ২০১৭: নূতন শিক্ষা বর্ষ থেকে কুমারগঞ্জ কলেজটির পঠনপাঠন চলবে নিজস্ব বিল্ডিঙে। স্থানীয় উচ্চবিদ্যালয়ের ঘরে ছাত্রছাত্রীদের ক্লাস করার সমস্যা মিটতে চলেছে এবার। জেলাপ্রশাসন ও কতৃপক্ষ সিদ্ধান্তে শনিবার আনুষ্ঠানিক ভাবে কলেজ বিল্ডিংটির উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে দেওয়া হল এমনই ইঙ্গিত। অনেক চেষ্টা করেও চলতি বছরে শুরু  করা যায়নি নিজস্ব ভবন থেকে পঠনপাঠন। তবে, বিল্ডিং উদ্বোধনের সাথে সাথে নূতন ভবনে শুর হচ্ছে না ।জানাগেছে, ২০১১ সালে তৃনমূল ক্ষমতায় আসার পর জেলার প্রতিটি ব্লকে ডিগ্রী কলেজ চালুর পরিকল্পনা নেয়। দক্ষিন দিনাজপুরের কুমারগঞ্জ ব্লকেও একটি কলেজ তৈরির পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়। ২০১২ সালে সেখানে ডিগ্রী কলেজ তৈরির কাজ শুরু হয়। কাজটিতে বরাদ্দ হয় ৪ কোটি ৬৬ লাখ ৬ হাজার ৮৫০ টাকা। কাজ সমাপ্ত করতে ভারপ্রাপ্ত ঠিকাদার সংস্থাকে এক বছর সময় দেওয়া হয়। কিন্তু গত পাঁচ বছরেও কলেজের ভবন তৈরির কাজ শেষ হয়না। এদিকে বরাদ্দকৃত টাকা বেড়ে প্রায় দ্বিগুন হয়েছে। অন্যদিকে ২০১৬ সাল থেকে কলেজের পঠনপাঠন চালু করে দেওয়া হয়।

নিজস্ব ভবন-এর কাজ সমাপ্ত না হওয়াতে কলেজের ক্লাস চলছে কুমারগঞ্জ হাইস্কুলে। গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে থাকা কুমারগঞ্জ কলেজে প্রথম বছর ৩৮ জন ছাত্র ভর্তি হয়। স্কুলের পঠনপাঠনের স্বার্থে সকাল করে হতে থাকে কলেজের ক্লাস। দ্বিতীয় বর্ষএ  কুমারগঞ্জ কলেজ-এ বাংলা, ইংরেজি, ইতিহাস,   ভূগোল, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, সংস্কৃতি ও এডুকেশন সাতটি বিষয় অনার্স কোর্স চালু হয়েছে। সাতটি বিষয়ে ২০৫ টি অনার্সের আসন সংরক্ষিত রয়েছে। কিন্তু স্কুলের ঘরে এইভাবে ক্লাস করতে ব্যাপক সমস্যায় ছাত্রছাত্রীরা। নূতন ভবনের কাজ সমাপ্ত করে সেখানে চলতি বছর ক্লাস চালুর সিদ্ধান্ত নিলেও তা আর হয়নি। অবশেষে নূতন শিক্ষাবর্ষ-এ নূতন ভবনেই ক্লাস চালু করার টার্গেট নেওয়া হয়েছে। এই কারনে শনিবার বিল্ডিংটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়েছে বলেই দাবী। এদিন নূতন ভবনের উদ্বোধন করেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী শ্রী বাচ্চু হাঁসদা। উপস্থিত ছিলেন জেলা শাসক শ্রী শরদ দ্বিবেদি, কুমারগঞ্জের বিধায়ক শ্রী তোরাফ হোসেন মন্ডল, পরিচালন সমিতির সম্পাদক শ্রী উজ্জ্বল বসাক, বিডিও শ্রী দেবদত্ত চক্রবর্তী সহ অন্যান্যরা। পরিচালন সমিতির সম্পাদক শ্রী উজ্জ্বল বসাক জানান, সামান্য কিছু কাজ বাকি রয়েছে। সেকারনে দুই এক দিনের মধ্যে নূতন ভবনে স্থানান্তর করা হচ্ছেনা কলেজটিকে। তাদের টার্গেট আগামী শিক্ষাবর্ষে নূতন ভবনে শুরু হবে পঠনপাঠন। সেকারনে বিল্ডিংটির উদ্বোধন করে দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজন হলে পরে একটি ছোট অনুষ্ঠান করা হবে।

ছবিঃ দীপঙ্কর মিত্র (টী.এন.আই)

Facebook Comments
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!